নৌকা ডুবল লজ্জায়—৯ কেন্দ্রে ৬৭ ভোট পেল চেয়ারম্যান পদে, জিতল এমপির ‘পছন্দের প্রার্থী’

চতুর্থ ধাপের ইউপি নির্বাচনে কক্সবাজারের চকরিয়ার চিরিঙ্গা ইউনিয়ন লজ্জায় ডুবেছে আওয়ামী লীগ। নৌকা প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী মো. শাহনেওয়াজ রুমেল পেয়েছেন মাত্র ৬৭ ভোট। নৌকা প্রার্থীর চেয়েও ৪ ভোট বেশি পেয়েছেন ইসলামী আন্দোলনের প্রার্থী নাজের হোছাইন।

এই ইউনিয়নে বিজয়ী প্রার্থীও আওয়ামী লীগের। তবে দল মনোনয়ন না দেওয়ায় স্বতন্ত্র প্রার্থী (আনারস) হয়ে লড়েন চিরিঙ্গা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি জামাল হোসেন চৌধুরী। যিনি আবার স্থানীয় সংসদ জাফর আলমের পছন্দের প্রার্থীও।

রোববার (২৬ ডিসেম্বর) রাত সোয়া ১০টায় বেসরকারিভাবে ফলাফল ঘোষণা করেন নির্বাচন কর্মকর্তা মো. শহিদুল ইসলাম। নির্বাচনে ৩ হাজার ৬৫৫ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হন চিরিঙ্গা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি স্বতন্ত্র প্রার্থী (আনারস) জামাল হোসেন চৌধুরী। জামাল হোসেন চৌধুরীর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী জসিম উদ্দিন (চশমা) পান ২ হাজার ৫৬৭ ভোট।

আরও পড়ুন: কর্ণফুলীতে ইউপি নির্বাচন—দুটিতে নৌকা, একটিতে বিদ্রোহী প্রার্থীর বিশাল জয়

স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, সকাল থেকে লাইনে দাঁড়িয়ে সবাই শান্তিপূর্ণভাবে ভোট দিয়েছেন। নিরপেক্ষ এবং শান্তিপূর্ণ ভোটে হেরেছেন নৌকার প্রার্থী। নির্বাচনের দিন ভোটকেন্দ্রে নৌকার পক্ষে কোনো ধরনের প্রভাব বিস্তার করতে দেখা যায়নি। স্থানীয় প্রশাসন এবং আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরাও নিরপেক্ষ ছিলেন। আমরা যে যার পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিতে পেরে খুব খশি।

এদিকে লজ্জার এ পরাজয়ের জন্য দলের অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের দায়ী করেছেন চিরিঙ্গা ইউনিয়নের নৌকার প্রার্থী মো. শাহনেওয়াজ রুমেল। তিনি বলেন, আমাকে দলীয় প্রতীক (নৌকা) দিলেও দলের অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের কোনো নেতাকর্মী আমার পক্ষে নির্বাচনি প্রচারণায় অংশ নেননি। দলীয় নেতাকর্মীদের অবহেলা ও আন্তরিকতার অভাবে নৌকার এমন ভরাডুবি হয়েছে।

উপজেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা গেছে, কোনো প্রার্থী প্রদত্ত ভোটের আট ভাগের এক ভাগ না পেলে তার জামানত বাজেয়াপ্ত হবে। সে অনুযায়ী চিরিঙ্গা ইউনিয়নের ৬ প্রার্থীর মধ্যে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রার্থীসহ ৩ জন জামানত হারিয়েছেন। চিরিঙ্গা ইউনিয়ন নির্বাচনে ৬ জন প্রার্থীর মধ্যে জামাল হোসেন চৌধুরী (স্বতন্ত্র) আনারস প্রতীক ৩ হাজার ৬৫৫ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন।

আরও পড়ুন: চকরিয়ায় এক ইউনিয়ন ছাড়া লড়াই হবে সবখানে—কঠোর বার্তা প্রশাসনের

এরপর কে এম সালাহউদ্দিন (স্বতন্ত্র) মোটরসাইকেল প্রতীক ২ হাজার ৩২৯ ভোট, জসিম উদ্দিন (স্বতন্ত্র) চশমা প্রতীক ২ হাজার ৫৬৭ ভোট, নাজের হোছাইন (ইসলামি আন্দোলন) হাত পাখা ৭১ ভোট, মো. শাহনেওয়াজ রুমেল (আওয়ামী লীগ) নৌকা প্রতীক ৬৭ ভোট এবং মো. করিম (স্বতন্ত্র) ঘোড়া প্রতীক পান ১৫ ভোট।

উল্লেখ্য, তৃতীয় ধাপের ইউপি নির্বাচনে কৈয়ারবিল ইউনিয়নে দলীয় (নৌকা) প্রতীক জান্নাতুল বকেয়া রেখা ৯৯ ভোট পেয়ে লজ্জার রেকর্ড করেন। তার চেয়ে কম ৬৭ ভোট পেয়ে সেই রেকর্ড ভেঙেছেন চিরিঙ্গা ইউনিয়নের আওয়ামী লীগ প্রার্থী মো. শাহনেওয়াজ রুমেল।

এএইচ/এসি
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm