চট্টগ্রামে ‘সুনামি’ গতির করোনায় রেকর্ড

চট্টগ্রামে করোনায় চলছে সুনামি গতি। দিন দিন করোনা আক্রান্ত শুধু বাড়ছেই। গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্তে রেকর্ড হয়েছে। সাম্প্রতিক সময়ে একদিনে এত করোনা রোগী শনাক্ত হয়নি।

সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় ৩ হাজার ৮০ নমুনায় ১ হাজার ১৭ জনের দেহে পাওয়া গেছে এ ভাইরাস। সঙ্গে মৃত্যু হয়েছে একজনের। শনাক্তের হার ৩৩.০১ শতাংশ।

আক্রান্তদের ৮০৭ জন নগর এবং ২১০ জন বিভিন্ন উপজেলার বাসিন্দা।

আরও পড়ুন : চট্টগ্রামে করোনা : ঊর্ধ্বমুখী গ্রাফে মৃত্যুর আঘাত

আগের দিন বৃহস্পতিবার শনাক্তের সংখ্যা ছিল ৯৩০ জন। শনাক্তের হার ছিল ৩০.৪৬ শতাংশ। বুধবার শনাক্ত হয়েছিল ৯৮৯ জন এবং হার ছিল ৩০.৯৮ শতাংশ।

শুক্রবার (২১ জানুয়ারি) চট্টগ্রাম সিভিল সার্জন কার্যালয়ের পাঠানো প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

প্রতিবেদনের তথ্য অনুযায়ী, এদিন ১০ ল্যাবে করোনার নমুনা পরীক্ষা হয়। এরমধ্যে বিআইটিআইডিতে ৭৪৩ নমুনায় ২৪৩ জন, শেভরনে ৬৮৪ নমুনায় ১১১ জন, ইম্পেরিয়াল হাসপাতালে ৩৯৩ নমুনায় ১৩৬ জন, আগ্রাবাদ মা ও শিশু হাসপাতালে ২৮৪ নমুনায় ৫৮ জন, চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ২৭৭ নমুনায় ১২৯ জন, এন্টিজেন টেস্টে ২৩৪ নমুনায় ৯৪ জন, মেডিকেল সেন্টার হাসপাতালে ১৮২ নমুনায় ৯৭ জন, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ১৪০ নমুনায় ৫৬ জন, ইপিক হেলথ কেয়ারে ১১৫ নমুনায় ৮১ জন এবং আরটিআরএলে ২৮ নমুনায় ১২ জনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়।

আরও পড়ুন : ‘সুখবর’—ব্রিটেনে উঠে যাচ্ছে মাস্কের বিধিনিষেধ, ১১ মার্চ থেকে করোনামুক্ত হবে ভারত!

এছাড়া চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি ও এনিমেল সাইন্সেস বিশ্ববিদ্যালয়, ল্যাবএইড, মেট্রোপলিটন হাসপাতাল, এশিয়ান স্পেশালাইজড হাসপাতাল, শাহ আমানত বিমানবন্দর এবং কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ ল্যাবে কোনো নমুনা পরীক্ষা হয়নি।

উপজেলায় আক্রান্তদের মধ্যে রাউজান ৩৭ জন, রাঙ্গুনিয়া ৩৩ জন, আনোয়ারা ২৮ জন, সাতকানিয়া ২২ জন, হাটহাজারী ১৯ জন, বোয়ালখালী ১৮ জন, মিরসরাই ১৮ জন, ফটিকছড়ি ১৩ জন, বাঁশখালী ৯ জন, সন্দ্বীপ ৪ জন, সীতাকুণ্ড ৩ জন, পটিয়া ৩ জন এবং চন্দনাইশে ৩ জন।

তবে লোহাগাড়া ও কর্ণফুলী উপজেলায় নতুন করে কোনো করোনা রোগী পাওয়া যায়নি।

আরও পড়ুন: ‘ওমিক্রন’ আঘাতের তৃতীয় দিনে ভাঙল চট্টগ্রামে মৃত্যুর রেকর্ড

চট্টগ্রামে মোট আক্রান্ত ১ লাখ ৯ হাজার ৩৯৩ জন। যাদের ৭৯ হাজার ৮৩১ জন নগর এবং ২৯ হাজার ৫৬২ জন উপজেলার বাসিন্দা।

মোট মৃত্যু ১ হাজার ৩৪৩ জন। যাদের ৭২৮ জন নগর ৬১৫ জন উপজেলার বাসিন্দা।

ডিসি
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm