সরে যাচ্ছে বেড়িবাঁধের ব্লক—ঝুঁকিতে শাহপরীর দ্বীপ

ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের প্রভাবে সাগরের শক্তিশালী ঢেউয়ের আঘাতে টেকনাফ শাহপরীর দ্বীপে নির্মাণ করা বেড়িবাঁধের ব্লক ধসে পানিতে চলে যাচ্ছে। এতে চরম ঝুঁকিতে পড়েছেন দ্বীপের প্রায় ৪০ হাজার মানুষ। জানা যায়, এই বেড়িবাঁধের গাম্পিং ব্লক দেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু দেওয়া হয়নি। ফলে জোয়ারের পানির ধাক্কায় বেড়িবাঁধের ব্লক সরে যাচ্ছে। ঘূর্ণিঝড় মোরার সময় বাঁধ ভেঙে ঘর-বাড়িতে পানি উঠে গাছপালা নষ্ট হয়েছিল। এখন সেই পুরনো আতঙ্কে দিন কাটছে এলাকার মানুষের।

সাবরাং ইউনিয়নের শাহপরীরদ্বীপ ৭ নম্বর ওয়ার্ডের মেম্বার নুরুল আমিন বলেন, ‘বর্তমানে বেড়িবাঁধের তিনটি পয়েন্ট খুব ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে গেছে। যেকোনো সময় ভেঙে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। আমি বারবার বেড়িবাঁধের ঠিকাদারকে বলার পরেও তারা কাজ করছেন না।’

শাহপরীর দ্বীপের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের মেম্বার ফজলুল হক বলেন, ‘শাহপরীর দ্বীপ দক্ষিণপাড়ায় ভাঙন শুরু হয়েছে। এ ঝুঁকিপূর্ণ বেড়িবাঁধের কারণে প্রতিনিয়ত দুর্যোগের সম্মুখীন হতে হয়। সরকারি মহল থেকে বারবার আশ্বাস দেওয়া হলেও তা বাস্তবায়ন হচ্ছে না।

সাবরাং ইউনিয়ন চেয়ারম্যান নুর হোসেন বলেন, বৃষ্টি কমলে ভেঙে যাওয়া বেড়িবাঁধের ঝুঁকিপূর্ণ পয়েন্ট ঠিক করতে বলা হয়েছে।

Yakub Group

যোগাযোগ করা হলে টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও)পারভেজ চৌধুরী বলেন, শাহপরীর দ্বীপ বেড়িবাঁধ ভেঙে ধসে পড়া স্থানগুলোতে কাজ করার জন্য পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তাদের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

বলরাম/আরবি

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm