শোক দিবসে শ্রমিকলীগ নেতাকে ‘পিটিয়ে রক্তাক্ত’ করলেন ইউপি চেয়ারম্যান

হাটহাজারীতে জাতীয় শোক দিবসের অনুষ্ঠানে ফুল দেওয়াকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ সময় পুলিশের সামনেই শ্রমিক লীগের এক নেতাকে পিটিয়ে রক্তাক্ত করেছে ১০ নম্বর মধ্যম মাদার্শা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মনজুর হোসেন চৌধুরী মাসুদ।

রোববার (১৫ আগস্ট) সকাল ১০ টায় মাদার্শা হাইস্কুল মাঠে এ ঘটনা ঘটে।

হামলায় আহত ব্যক্তির নাম অসীম মল্লিক (৪০)। তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এদিকে অভিযুক্ত চেয়ারম্যানের দাবি দলের অনুপ্রবেশকারীরা তার উপর হামলা করেছে এবং হামলাকারীকে উপস্থিত জনতা গণধোলাই দিয়েছে।

আরও পড়ুন: ‘চসিক সচিবের কাণ্ড’—শোক দিবসে প্লাস্টিকের ফুল দেখে ‘অগ্নিমূর্তি মেয়র’

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, শোক দিবস উপলক্ষে মসজিদে খতমে কোরআন ও আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। কর্মসূচি চলাকালীন অসীম মল্লিক মাদার্শা হাইস্কুলের মাঠের গেটে দাঁড়িয়ে ছিলেন৷ এ সময় চেয়ারম্যান মনজুর হোসেন মাসুদ ও তার ভাই শাকাওয়াত অতর্কিত এসে অসিম মল্লিককে মারধর শুরু করেন। পরে ইলিয়াস আবদুল বারেক মুন্সি আকতার ও চেয়ারম্যানের গাড়ি চালক জামশেদও তাদের সাথে যোগ দেন।  সংঘবদ্ধ হামলায় মাথায় গুরুতর আঘাত পান অসীম মল্লিক । এ সময় ঘটনাস্থলে থাকা পুলিশ সদস্যরা  আহতকে উদ্ধার করে হাটহাজারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠায়। পরে তাকে চমেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আরও পড়ুন: বাঙালি হৃদয়ের আর্তিতে লেখা অশ্রু ঝরানো লিপিকা

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী মাসুদুর রহমান বলেন,‘পূর্ব শত্রুতার জেরে মাসুদ চেয়ারম্যান ও তার ভাইসহ অন্যরা মিলে পরিকল্পিতভাবে হামলা চালিয়ে অসীম মল্লিককে গুরুতর আহত করেছেন।’

তবে অভিযোগ অস্বীকার করে চেয়ারম্যান মনজুর হোসেন মাসুদ বলেন, ‘আমার উন্নয়ন ও জনপ্রিয়তাকে প্রশ্নবিদ্ধ করতে দলের বহিরাগতরা আমার উপর হামলা করে হাত ভেঙে দিয়েছে। এ সময় আমার কর্মী ও পুলিশ এসে আমাকে উদ্ধার করেন। আমি বর্তমানে হাসপাতালে ভর্তি আছি। চেয়ারম্যানের উপর হামলায় সাধারণ মানুষ অসীম নামের এক হামলাকারীকে গণধোলাই দিয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে হাটহাজারী মডেল থানার এসআই ইরফান উদ্দিন রাজিব বলেন, ‘ফুল দেওয়া নিয়ে দু’পক্ষের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। পরে দু’পক্ষকে সরিয়ে দেওয়া হয় এবং হামলায় আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।‘

সিএম/আরবি

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm