রক্তাক্ত যুবক—পেট্রোল পাম্পে শ্যামলী বাস রেখে পালিয়ে গেল চালক

সীতাকুণ্ডের বাসের ধাক্কায় মোটরসাইকেল আরোহী এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় ঘাতক বাসটি আটক করা হলেও পালিয়েছে চালক।

রোববার (৫ ডিসেম্বর) সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুমিরা ঘোড়ামরা এলাকায় মর্মান্তিক এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতের নাম মো. তারেক হোসেন (২৭)। তিনি উপজেলার সোনাইছড়ি ইউনিয়নের ঘোড়ামরা গ্রামের আবুল হাসেমের ছেলে।

বরের বাড়িতে হামলা কনেপক্ষের—যুবক খুন, রক্তাক্ত ১০

প্রত্যক্ষদর্শীয় ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের ঘোড়ামরা এলাকায় চট্টগ্রামমুখী মোটরসাইকেলকে দ্রুতগামী শ্যামলী পরিবহনের বাস ধাক্কা দেয়। এ সময় আরোহী তারেক হোসেন রাস্তায় ছিটকে পড়ে গুরুতর আহত হয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান। ঘটনার পর বাসচালক গাড়িটি নিয়ে ভাটিয়ারী এলাকার একটি পেট্রোল পাম্পে রেখে পালিয়ে যায়।

এদিকে খবর পেয়ে বার আউলিয়া হাইওয়ে থানা পুলিশ ঘাতক বাসটিকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।

যোগাযোগ করা হলে বার আউলিয়া হাইওয়ে থানার ওসি মো. নাজমুল হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে আলোকিত চট্টগ্রামকে বলেন, একটি বাস ভাটিয়ারী পেট্রোল পাম্পে রেখে চালক পালিয়ে গেছে- এমন সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে যাই। সেখানে গিয়ে জানতে পারি বাসটি মোটরসাইকেল আরোহীকে চাপা দিয়ে পালিয়ে এসেছে। পরে ঘোড়ামরা এলাকায় বাসের ধাক্কায় তারেক হোসেন নিহতের বিষয়ে নিশ্চিত হয় । বাসটি আটক করা হয়েছে এবং এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।

সালাউদ্দিন/আরবি

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm