পর্যটন সংরক্ষিত এলাকা সীতাকুণ্ডের গুলিয়াখালী সমুদ্রসৈকত, প্রজ্ঞাপন জারি

সীতাকুণ্ডের গুলিয়াখালী সমুদ্রসৈকতকে পর্যটন সংরক্ষিত এলাকা হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে।

সোমবার (১০ জানুয়ারি) বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয় এ ঘোষণা দেয়। পর্যটন-২ অধিশাখার উপসচিব শ্যামলী নবী স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে বিষয়টি জানানো হয়।

আরও পড়ুন : আতঙ্ক—‘ইয়াস’ আঘাত হানলে কী হবে গুলিয়াখালীর

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, সীতাকুণ্ড উপজেলার গুলিয়াখালী সমুদ্রসৈকত এলাকার ১ নম্বর খাস খতিয়ানের মোট জমির পরিমাণ ২৫৯ দশমিক ১০ একর। এই খাস জমিকে পর্যটন সংরক্ষিত এলাকা হিসেবে ঘোষণা করা হলো। সরকার এই মর্মে সন্তুষ্ট হয়েছে যে, অপরিকল্পিত স্থাপনা নির্মাণ বা অন্য কোনোরূপ কার্যক্রম গ্রহণের কারণে গুলিয়াখালী সমুদ্রসৈকত এলাকায় পর্যটনশিল্পের উন্নয়ন ও বিকাশ ব্যাহত হচ্ছে বা ভবিষ্যতে আরও ব্যাহত হওয়ার শঙ্কা রয়েছে।

প্রজ্ঞাপনে আরো বলা হয়, বাংলাদেশের পর্যটনশিল্প ও সেবাখাতের পরিকল্পনা, উন্নয়ন ও বিকাশের লক্ষ্যে এবং পর্যটন সম্ভাবনাময় এলাকায় অপরিকল্পিত স্থাপনা নির্মাণ বা অন্য কোনোরূপ কার্যক্রম নিয়ন্ত্রণের জন্য বাংলাদেশ পর্যটন সংরক্ষিত এলাকা ও বিশেষ পর্যটন অঞ্চল আইন, ২০১০ এর (৪) ধারার ক্ষমতাবলে গুলিয়াখালী সমুদ্রসৈকত এলাকা পর্যটন সংরক্ষিত এলাকা হিসেবে ঘোষণা করা হলো।

আলোকিত চট্টগ্রাম
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm