করোনার ৭ দিন—‘হটস্পট’ রাউজান, হঠাৎ বাড়ছে পটিয়া-বোয়ালখালীতে

চট্টগ্রামের ১৪ উপজেলায় করোনা শনাক্তের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। গত এক সপ্তাহে চট্টগ্রামের উপজেলাগুলোর মধ্যে রাউজানে সর্বোচ্চ সংখ্যক করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন। অন্যদিকে হঠাৎ করোনা রোগী বাড়ছে দক্ষিণ চট্টগ্রামের দুই উপজেলা পটিয়া ও বোয়ালখালীতে।

চট্টগ্রাম সিভিল সার্জন কার্যালয়ের গত এক সপ্তাহের পরিসংখ্যান পর্যালোচনা করে দেখা যায়, আগের ২৪ ঘণ্টার নমুনা পরীক্ষার ভিত্তিতে ২৫ জুলাই থেকে ৩১ জুলাই পর্যন্ত চট্টগ্রামের ১৪টি উপজেলায় মোট ২ হাজার ২৮২ জনের করোনা শনাক্তের খবর মিলেছে। এরমধ্যে আগের ২৪ ঘণ্টার নমুনা পরীক্ষায় ২৫ জুলাই ৩৩২ জন, ২৬ জুলাই ২৬৮ জন, ২৭ জুলাই ৪৭৭ জন, ২৮ জুলাই ২৭৪ জন, ২৯ জুলাই ৪৫৭ জন, ৩০ জুলাই ৩৮১ জন এবং ৩১ জুলাই ৯৩ জনের করোনা শনাক্তের খবর জানায় জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়।

এদিকে আগের ২৪ ঘণ্টার নমুনা পরীক্ষায় ২৫ জুলাই থেকে ৩১ জুলাই পর্যন্ত লোহাগাড়ায় ৮৩ জন, সাতকানিয়ায় ১১৭ জন, বাঁশখালীতে ১০৬ জন, আনোয়ারায় ১৬৭ জন, চন্দনাইশে ৬৬ জন, পটিয়ায় ২১৪ জন, বোয়ালখালীতে ২৬৪ জন, রাঙ্গুনিয়ায় ১৯৫ জন, রাউজানে ২৮৩ জন, ফটিকছড়িতে ২১৪ জন, হাটহাজারীতে ২২০ জন, সীতাকুণ্ডে ১৪২ জন, মিরসরাইয়ে ৭১ জন ও সন্দ্বীপে ১৩৭ জনের করোনা শনাক্ত হয়।

আরও পড়ুন: এবার একদিনেই ৩৪ শতাংশের বেশি শনাক্ত চট্টগ্রামে

রোববার (২৫ জুলাই) চট্টগ্রাম সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, আগের ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামের ২ হাজার ৭৮ নমুনা পরীক্ষায় ৮০১ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে ৪৬৯ জন নগরের এবং ৩৩২ জন বিভিন্ন উপজেলার বাসিন্দা।

শনাক্তদের মধ্যে লোহাগাড়ার ৩ জন, সাতকানিয়ার ৩ জন, বাঁশখালীর ২০ জন, আনোয়ারার ২৮ জন, চন্দনাইশের ২ জন, পটিয়ার ৩৬ জন, বোয়ালখালীর ৩৭ জন, রাঙ্গুনিয়ার ৩৮ জন, রাউজানের ৪০ জন, ফটিকছড়ির ৫ জন, হাটহাজারীর ৬৬ জন, সীতাকুণ্ডের ১৯ জন, মিরসরাইয়ের ১২ জন এবং সন্দ্বীপের বাসিন্দা রয়েছেন ২৩ জন।

সোমবার (২৬ জুলাই) চট্টগ্রাম জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয় জানায়, আগের ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামের ২ হাজার ২৮২ নমুনা পরীক্ষায় পজিটিভ হয়েছেন ৮৪৮ জন। এর মধ্যে ৫৮০ জন নগরের এবং ২৬৮ জন বিভিন্ন উপজেলার বাসিন্দা।

শনাক্তদের মধ্যে লোহাগাড়ার ১৬ জন, সাতকানিয়ার ৭ জন, বাঁশখালীর ৯ জন, চন্দনাইশের ৩০ জন, পটিয়ার ৪৩ জন, বোয়ালখালীর ৩৮ জন, রাঙ্গুনিয়ার ৩২ জন, রাউজানের ৪ জন, ফটিকছড়ির ১৪ জন, হাটহাজারীর ১০ জন, সীতাকুণ্ডের ১৭ জন, মিরসরাইয়ের ১২ জন ও সন্দ্বীপের বাসিন্দা রয়েছেন ৩৩ জন।

মঙ্গলবার (২৭ জুলাই) চট্টগ্রাম জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয় জানায়, আগের ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামের ৩ হাজার ৩৮৯ নমুনা পরীক্ষায় ১ হাজার ৩১০ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে ৮৩৩ জন নগরের এবং ৪৭৭ জন বিভিন্ন উপজেলার বাসিন্দা।

শনাক্তদের মধ্যে লোহাগাড়ার ২ জন, সাতকানিয়ার ১৮ জন, বাঁশখালীর ২১ জন, আনোয়ারার ৬৭ জন, চন্দনাইশের ২ জন, পটিয়ার ৫৭ জন, বোয়ালখালীর ৬৫ জন, রাঙ্গুনিয়ার ৪৪ জন, রাউজানের ৫৪ জন, ফটিকছড়ির ৩০ জন, হাটহাজারীর ৫৯ জন, সীতাকুণ্ডের ২৩ জন, মিরসরাইয়ের ১২ জন ও সন্দ্বীপের বাসিন্দা রয়েছেন ২৩ জন।

বুধবার (২৮ জুলাই) চট্টগ্রাম জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয় জানায়, আগের ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামের ২ হাজার ৭৯২ নমুনা পরীক্ষায় ৯১৫ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে ৬৪১ জন নগরের এবং ২৭৪ জন বিভিন্ন উপজেলার বাসিন্দা।

শনাক্তদের মধ্যে লোহাগাড়ার ১৯ জন, সাতকানিয়ার ১২ জন, বাঁশখালীর ১৮ জন, আনোয়ারার ৩ জন, পটিয়ার ৩৮ জন, বোয়ালখালীর ৪৪ জন, রাঙ্গুনিয়ার ১ জন, রাউজানের ৪৭ জন, ফটিকছড়ির ৩২ জন, হাটহাজারীর ৩ জন, সীতাকুণ্ডের ২৮ জন, মিরসরাইয়ের ৭ জন ও সন্দ্বীপের বাসিন্দা রয়েছেন ২২ জন।

বৃহস্পতিবার (২৯ জুলাই) চট্টগ্রাম জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয় জানায়, আগের ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামের ৩ হাজার ৫১৫ নমুনা পরীক্ষায় ১ হাজার ৩১৫ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে ৮৫৮ জন নগরের এবং ৪৫৭ জন বিভিন্ন উপজেলার বাসিন্দা।

শনাক্তদের মধ্যে লোহাগাড়ার ৩৭ জন, সাতকানিয়ার ২৭ জন, বাঁশখালীর ২৫ জন, আনোয়ারার ৪১ জন, চন্দনাইশের ১ জন, পটিয়ার ৩৩ জন, বোয়ালখালীর ৩২ জন, রাঙ্গুনিয়ার ৪২ জন, রাউজানের ৬৯ জন, ফটিকছড়ির ৭৮ জন, হাটহাজারীর ৩৫ জন, সীতাকুণ্ডের ১৭ জন, মিরসরাইয়ের ৭ জন ও সন্দ্বীপের বাসিন্দা রয়েছেন ১৩ জন।

শুক্রবার (৩০ জুলাই) চট্টগ্রাম জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয় জানায়, আগের ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামের ৩ হাজার ৯২৩ নমুনা পরীক্ষায় ১ হাজার ৪৬৬ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে ১ হাজার ৮৫ জন নগরের এবং ৩৮১ জন বিভিন্ন উপজেলার বাসিন্দা।

শনাক্তদের মধ্যে লোহাগাড়ার ৫ জন, সাতকানিয়ার ৩৮ জন, বাঁশখালীর ১২ জন, আনোয়ারার ৭ জন, চন্দনাইশের ২৬ জন, পটিয়ার ৫ জন, বোয়ালখালীর ৪৮ জন, রাঙ্গুনিয়ার ৩৮ জন, রাউজানের ৬২ জন, ফটিকছড়ির ৩৩ জন, হাটহাজারীর ৪৫ জন, সীতাকুণ্ডের ২৬ জন, মিরসরাইয়ের ১৯ জন ও সন্দ্বীপের বাসিন্দা রয়েছেন ১৭ জন।

শনিবার (৩১ জুলাই) চট্টগ্রাম জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, আগের ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামের ২ হাজার ১৩৪ নমুনা পরীক্ষায় ৭৪২ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে ৬৪৯ জন নগরের এবং ৯৩ জন বিভিন্ন উপজেলার বাসিন্দা।

শনাক্তদের মধ্যে লোহাগাড়ার ১ জন, সাতকানিয়ার ১২ জন, বাঁশখালীর ১ জন, আনোয়ারার ২১ জন, চন্দনাইশের ৫ জন, পটিয়ার ২ জন, রাউজানের ৭ জন, ফটিকছড়ির ২২ জন, হাটহাজারীর ২ জন, সীতাকুণ্ডের ১২ জন, মিরসরাইয়ের ২ জন ও সন্দ্বীপের বাসিন্দা রয়েছেন ৬ জন।

প্রসঙ্গত, শনিবার (৩১ জুলাই) চট্টগ্রাম জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়ের সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, চট্টগ্রামে এখন পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে মোট ৯৬২ জন করোনা আক্রান্ত রোগীর। অন্যদিকে এদিন পর্যন্ত চট্টগ্রামে করোনা শনাক্ত হয়েছে মোট ৮১ হাজার ৯৫৯ নমুনায়।

জেডএইচ
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm