‘কাপড়ের ব্যবসা’ আড়ালে মাদকবাণিজ্য, ১৮ লাখ টাকার ইয়াবা নিয়ে ধরা পড়ল যুবক

লোহাগাড়ায় ৬ হাজার ইয়াবাসহ জুনাইদ হোছাইন নামে এক যুবককে আটক করা হয়েছে।

সোমবার (১৩ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের চুনতি ফরেস্ট রেঞ্জ কর্মকর্তার কার্যালয় এলাকায় ম্যাজিক গাড়িতে তল্লাশি চালিয়ে তাকে আটক করে  লোহাগাড়া থানা পুলিশ।

আটক জুনাইদ হোছাইন (৩০) লোহাগাড়া উপজেলা চুনতি ইউনিয়নের ইউসুফের বাপের বাড়ির ইলিয়াছ মিয়ার ছেলে।

আরও পড়ুন: ‘বিব্রত নেতারা’—ইয়াবাকাণ্ডে জড়িয়ে পদ হারালেন সেই ছাত্রলীগ নেতা

Thai Food

পুলিশ জানায়, জুনাইদ কক্সবাজারে একটি কাপড়ের দোকানে চাকরি করতেন। চাকরি আড়ালে জড়িত ছিলেন ইয়াবা পাচারের কাজে। উদ্ধার করা ইয়াবাগুলো আমিরাবাদে পৌঁছানোর জন্য ২০ হাজার টাকার বিনিময়ে চুক্তি হয় তার সাথে। কিন্তু পৌঁছানোর আগেই ধরা পড়েন তিনি।

লোহাগাড়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) জাকের হোসাইন মাহমুদ জানান, মো. জুনাইদ নামের এক যুবককে ৬ হাজার পিস ইয়াবাসহ আটক করা হয়েছে। উদ্ধার করা ইয়াবাগুলোর আনুমানিক বাজারমূল্য ১৮ লাখ টাকা । আটক যুবকের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা করা হয়েছে।

আরও পড়ুন: ছাত্রলীগ নেতার ‘ইয়াবা বাণিজ্য’—বাইকে চট্টগ্রামের ২ নেতা যাচ্ছিল ঢাকায়, পথেই ধরা

সাতকানিয়া সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জাকারিয়া রহমান জিকু জানান, কক্সবাজার মহাসড়কের চুনতি এলাকার চেকপোস্টে প্রায় প্রতিনিয়তই ধরা পড়ছে ইয়াবাসহ বিভিন্ন মাদক। মাদক কারবারিদের সঙ্গে কোনো আপস নয়। আটক মাদক পাচারকারীর সঙ্গে কারা কারা জড়িত তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

সাত্তার/আরবি

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm