২ ব্র্যাককর্মী রক্তাক্ত—ধাওয়া করে অস্ত্রধারী ৩ ছিনতাইকারীকে ধরল সাহসী জনতা

লামায় ব্র্যাককর্মীকে কুপিয়ে টাকা ছিনতায়ের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় জড়িত তিন ছিনতাইকারীকে আটক করে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে দিয়েছেন স্থানীয়রা।

বুধবার (১৭ নভেম্বর) উপজেলার ফাইতং ইউনিয়নের রাংগাঝিরি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আটক তিন ছিনতাইকারীর কাছ থেকে একটি একনলা বন্দুক উদ্ধার করেছে পুলিশ।

এদিকে ঘটনার পর দুপুরে ব্র্যাক হারবাং শাখার ম্যানাজার মো. সাহাব উদ্দিন ৫ জনের নাম উল্লেখসহ ৩ জনকে অজ্ঞাত করে লামা থানায় মামলা করেছেন।

আরও পড়ুন: ট্রাকে ছিনতাই করার সময় যুবক আটক, পালিয়ে গেল দুই সঙ্গী

হামলায় আহতরা হলেন- ফিল্ড অফিসার ও নোয়াখালী জেলার হাতিয়া উপজেলার জাহাজমারা এলাকার চর হেয়াক গ্রামের সিরাজ উদ্দিনের ছেলে রাকিব উদ্দিন (২৮) এবং মনিটরিং অফিসার ও ঝিনাইদহ জেলার কালীগঞ্জ উপজেলার বিপিননগর ইউনিয়নের গোপীনাথপুর গ্রামের মৃত গৌর চন্দ্র বিশ্বাসের ছেলে সাধন কুমার বিশ্বাস (৪৪)।

আহত দুজনকে চকরিয়া সরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তবে রাকিবের অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

Thai Food
ছিনতাইকারীদের হামলায় আহতরা-আলোকিত চট্টগ্রাম

আটক তিনজন হলেন- বান্দরবানের আলীকদম উপজেলার সদর ইউনিয়নের ৭নম্বর ওয়ার্ডের নয়াপাড়া গ্রামের মৃত আব্দুল জলিলের ছেলে আনোয়ার হোসেন (২৭), মৃত মোহাম্মদ হোসেনের ছেলে জাফর ইকবাল (৩৭) এবং চন্দনাইশ উপজেলার দোহাজারী এলাকার দক্ষিণ রাজানগর গ্রামের আব্দুল গফুরের ছেলে মো. সুমন (১৭)।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, বুধবার দুপুর ১টার দিকে ব্র্যাক হারবাং শাখার ফিল্ড অফিসার ও মনিটরিং অফিসার লামা থানাধীন ফাইতং ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের বড় মুসলিমপাড়া যান। সেখান থেকে সঞ্চয় ও ঋণের কিস্তির টাকা সংগ্রহ করে হারবাং অফিসে আসার পথে ফাইতং ইউনিয়নের রাঙাঝিরি এলাকায় আসামিরা অস্ত্রের মুখে মোটরসাইকেলের গতিরোধ করে অতর্কিত হামলা চালায়। ধারাল অস্ত্র দিয়ে আঘাত করে রাকিবকে রাস্তার পাশে ফেলে দেয়। মোটরসাইকেলের পেছনে বসা মনিটরিং অফিসার সাধন কুমার বিশ্বাসকে মাথার পেছনে আঘাত করলে তিনিও অচেতন হয়ে রাস্তায় পড়ে যান। এ সময় আসামিরা রাকিবের হাতে থাকা নগদ ২ লাখ ৭০ হাজার টাকা ও অফিসের ব্যবহৃত ট্যাব ছিনিয়ে নিয়ে যায়। পরে স্থানীয় লোকজন গুরুতর আহত অবস্থায় রাকিবকে উদ্ধার করে চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপেক্সে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যায়।

আরও পড়ুন: ছিনতাইয়ের ‘নাটক’ করেও হয়নি শেষ রক্ষা, পুলিশের হাতে ধরা

এরপর স্থানীয়রা ধাওয়া করে ঘটনায় জড়িত তিনজনকে আটক করে গনপিটুনি দেয়। পরে পুলিশ এসে তাদের নিয়ে যায়।

যোগাযোগ করা হলে লামা থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) শিবেন বিশ্বাস আলোকিত চট্টগ্রামকে বলেন, আটক তিনজন পুলিশের হেফাজতে আছে। এ ঘটনায় ব্র্যাক এনজিওর চকরিয়ার হারবাং শাখার ম্যানাজার মো. সাহাব উদ্দিনের এজাহারটি রেকর্ড করা হয়েছে। আটকদের আদালতে পাঠানো হবে।

ইলিয়াছ/আরবি

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm