২১ ডিসেম্বর পর্যন্ত আইসোলেশনে পুরো বাংলাদেশ দল

নিউজিল্যান্ডে থাকা পুরো বাংলাদেশ দলকে ২১ ডিসেম্বর পর্যন্ত আইসোলেশনে পাঠানো হয়েছে। বাংলাদেশ দলের বোলিং কোচ রঙ্গনা হেরাথের করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসার পরই এ সিদ্ধান্ত নেওয়া্ হয়।

শুরুতে তার সংস্পর্শে আসা ৯ ক্রিকেটার এবং সাপোর্ট স্টাফকে আইসোলেশনে নেয়া হয়েছিল। পরে, অতিরিক্ত সতর্কতা হিসেবে পুরো বাংলাদেশ দলকেই আইসোলেশনে নেয়া হয়। যদিও নতুন করে কারো করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসেনি।

বাংলাদেশ দলের নির্বাচক আবদুর রাজ্জাক জানান, ‘২১ ডিসেম্বর পর্যন্ত স্ট্রিক্ট আইসোলেশনে থাকতে হবে পুরো দলকে। এর মধ্যে যে কোনো ধরনের প্র্যাকটিস, আউটিং এবং জিম করা বন্ধ। স্পেশাল সিকিউরিটির অংশ হিসেবে এই ব্যবস্থা নিয়েছে নিউজিল্যান্ড কর্তৃপক্ষ।’

আরও পড়ুন: ১৩২ বছর পর টেস্ট ক্রিকেটে দেখা গেল এমন ঘটনা

বাংলাদেশ দলের টিম লিডার খালেদ মাহমুদ সুজন জানিয়েছিলেন, ‘নতুন করে কেউ আর আক্রান্ত হওয়ার ঘটনা ঘটেনি।’

তবে এক্ষেত্রে আগের নির্ধারিত প্রস্তুতি ম্যাচ দুটি কিভাবে হবে তা নিয়ে অনিশ্চয়তা তৈরি হয়েছে, কারণ নতুন করে কোনো সূচি ঘোষণা করা হয়নি। এখন সবই নির্ধারণ হবে, ২১ ডিসেম্বর আইসোলেশন থেকে বের হওয়ার পর।

প্রসঙ্গত, বুধবার প্রথম করোনা পজিটিভ ধরা পড়ে বাংলাদেশ দলের শ্রীলঙ্কান স্পিন বোলিং কোচ রঙ্গনা হেরাথের। ওই সময় তার সংস্পর্শে আসা মুমিনুল হকসহ ৯ ক্রিকেটারকে আইসোলেশনে পাঠানো হয়।

এসি
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm