বছরের শুরুতেই পদদলিত হয়ে ১২ জনের মৃত্যু

নতুন বছরের শুরুতে বৈষ্ণো দেবীকে প্রণাম করতে গিয়েছিলেন লাখ লাখ ভক্ত। ভক্তের ভিড়ে পদদলিত হয়ে সেখানে মারা গেছেন ১২ জন। আহত হয়েছেন অন্তত ১৪ জন।

শুক্রবার (৩১ ডিসেম্বর) গভীর রাতে এ ঘটনা ঘটেছে ভারতের জম্মু ও কাশ্মীরের মাতা বৈষ্ণো দেবী মন্দিরে। মন্দিরটি ত্রিকুটা পাহাড়ের ওপর অবস্থিত। সেখানে যাওয়ার পথে ভিড়ে পদদলিত হয়ে মৃত্যুর ঘটনা ঘটে।

মন্দিরের কর্মকর্তারা বলছেন, নতুন বছর উপলক্ষে লাখ লাখ ভক্তের সমাগম হয় মন্দিরে। এরমধ্যে তাড়াহুড়ো করতে গিয়ে মৃত্যু ঘটনা ঘটেছে।
আহতদের হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। এদের মধ্যে কয়েকজনের অবস্থা গুরুতর।

আরও পড়ুন : নিয়ন্ত্রণ হারানো মোটরসাইকেলে মৃত্যু যুবকের, রক্তাক্ত সঙ্গী হাসপাতালে

মৃত্যুর ঘটনায় শোক জানিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

ইতোমধ্যে নিহতদের পরিবারকে দুই লাখ রুপি ও আহতদের ৫০ হাজার রুপি করে সহায়তা দেওয়ার কথাও ঘোষণা করা হয়েছে।

এছাড়া আহতদের চিকিৎরসা ভার মন্দির কর্তৃপক্ষ নিয়েছে বলে জানিয়েছেন জম্মু ও কাশ্মীরের লেফটেনেন্ট গভর্নর মনোজ সিনহা। সেইসঙ্গে নিহতদের পরিবারকে ১০ লাখ রুপি ও আহতদের ২ লাখ রুপি করে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার আশ্বাস দেওয়া হয়েছে।

পাহাড়ের ওপরে অবস্থিত এ মন্দিরে প্রতিবছর ৩১ ডিসেম্বর ও ১ জানুয়ারি নতুন বছর উপলক্ষে প্রচুর ভিড় হয়। প্রায় ১৫ কিলোমিটার পাহাড়ি পথ হেঁটে মন্দিরে পৌঁছাতে হয়। রাস্তার দুপাশে খাদ রয়েছে। তবে সেখানে বেষ্টনী দেওয়া আছে। কিন্তু মূল মন্দিরে যেখানে দেবী আছেন, সেখানে জায়গা সংকীর্ণ। ওই জায়গায় ভক্তদের সামাল দিতে হিমশিম খেতে হয় মন্দির কর্তৃপক্ষকে। তথ্যসূত্র : টাইমস অফ ইন্ডিয়া।

আলোকিত চট্টগ্রাম
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm