‘সুখবর চট্টগ্রাম’—করোনার ৯১২০০ টিকা যারা পাবেন, যেভাবে

চীনের সিনোফার্মের তৈরি ৯১ হাজার ২০০ ডোজ টিকা চট্টগ্রাম এসে পৌঁছেছে। তবে এসব টিকা বিতরণ ও প্রয়োগের ব্যাপারে এখনও চূড়ান্ত কোনো সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি। আগামীকাল শনিবার (১৯ জুন) এ বিষয়ে বৈঠকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

শুক্রবার (১৮ জুন) সকাল সাড়ে ৭টায় বেক্সিমকো ফার্মার বিশেষ গাড়িযোগে ১৫২টি বাক্সে করে এসব টিকা ঢাকা থেকে সিভিল সার্জন অফিস থেকে চট্টগ্রামে নিয়ে আসা হয়।

পরে টিকার চালান গ্রহণ করেন সিভিল সার্জনের নেতৃত্বে থাকা একটি টিম। টিকাগুলো সিভিল সার্জন কার্যালয়ে ইপিআই কোল্ড স্টোরে সংরক্ষণ করা হয়।

এ বিষয়ে জেলা সিভিল সার্জন সেখ ফজলে রাব্বি জানান, চীনের সিনোফার্মের তৈরি ৯১ হাজার ২০০ ডোজ টিকা বুঝে নিয়েছি। শনিবার (১৯ জুন) বৈঠকের মাধ্যমে এসব টিকা দেওয়া শুরুর বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। তবে এবার প্রতিটি জেলায় কেবল একটি টিকাকেন্দ্র থেকে টিকা দেওয়া হবে।

তিনি আরও বলেন, ‘টিকা দেওয়ার ক্ষেত্রে আগে যারা রেজিস্ট্রেশন করেছেন তারা অগ্রাধিকার পাবেন। এর বাইরে ফ্রন্টলাইনার, মেডিকেল শিক্ষার্থী, সিটি করপোরেশনের পরিচ্ছন্নতা কর্মী এবং চীনা নাগরিকদের অগ্রাধিকার দেওয়া হবে।’

জানা গেছে, চট্টগ্রাম বিভাগের পাঁচটি জেলার জন্য ১ লাখ ১৪ হাজার ডোজ টিকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। এরমধ্যে চট্টগ্রাম জেলার জন্য  ৯১ হাজার ২০০ ডোজ, কক্সবাজার জেলার জন্য ১০ হাজার ৮০০ ডোজ, রাঙামাটি জেলার জন্য ৪ হাজার ৮০০ ডোজ, খাগড়াছড়ি জেলার জন্য ৩ হাজার ৬০০ ডোজ ও বান্দরবান জেলার জন্য ৩ হাজার ৬০০ ডোজ টিকা। ২০২৩ সালের ৪ এপ্রিলের মধ্যে ৯১ হাজার ২০০ ডোজ টিকা প্রয়োগ করতে হবে ।

প্রসঙ্গত, করোনাভাইরাস প্রতিরোধী চীন সরকারের উপহারের প্রথম দফার ৫ লাখ ডোজ টিকা ১২ মে ঢাকায় আসে।  দ্বিতীয় দফায় ১৩ জুন ৬ লাখ ডোজ টিকা আসে বাংলাদেশে।

আলোকিত চট্টগ্রাম
1 মন্তব্য
  1. Syed abdul awal বলেছেন

    চট্রগ্রামের সাস্হ্য অধিদপ্তরের প্রধান করমকাতার মনোযোগ আকরশন করছি,চট্টগ্রামে এস্টেজেনকার ১লক্ষ দ্বিতীয় ডোজের টিকার বয়াপারে আপনারা কি সিদ্ধান্ত নিয়েছেন এ ব্যাপারে কোন কিছু জানাচ্ছেন না কেন?

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm