সংঘর্ষ দুই বাসের, প্রাণ গেল ছাবেরের

পেকুয়া বারবাকিয়ার কাদিমাকাটা রাস্তার মাথা এলাকায় যাত্রীবাহী দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে ঘটনাস্থলে প্রাণ হারিয়েছেন এক বৃদ্ধ। আহত হয়েছেন ১২ যাত্রী।

রোববার (২০ জুন) সকাল সাড়ে ৯টায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। আহতদের মধ্যে গুরুতর ৫ জনকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

নিহত ছাবের আহমেদ (৬০) কুতুবদিয়া উপজেলার বড়ঘূপ ইউনিয়নের উত্তর বড়ঘূপের মৃত শেয়ার উল্লাহর ছেলে।

আহতরা হলেন- কুতুবদিয়ার নজির আহমেদের ছেলে জামাল হোসেন (৩০), জাহাঙ্গীর আলমের ছেলে মোহাম্মদ আজম (২২), মৃত ওলামিয়ার ছেলে মোক্তার হোসেন (৪০), নুরুল আলমের মেয়ে ফরিদা বেগম (৩০), সিকদার পাড়ার আমিন উল্লাহর ছেলে মোহাম্মদ বাবু (২৫), রাহাজান পাড়ার জাহাঙ্গীর আলমের ছেলে মো. সাজ্জাদ (২৩), কামাল হেসেনের ছেলে শহীদুল ইসলাম (৪৫), গোয়াখালীর আহমদ হোসেনের ছেলে মোহাম্মদ বাদশা (৩০), সাতকানিয়ার হাফিজুর রহমানের ছেলে মাহমুদুল আক্তার (৩০), সিকদার পাড়ার আমিন উদ্দীনের স্ত্রী রওশন আরা (৫৫), চকরিয়ার মৃত কৃষ্ণচন্দ্র নাথের ছেলে সাধন চন্দ্রনাথ (৪০) ও কুতুবদিয়া লেম্সিখালীর জাবের আহমেদের ছেলে মামুনুর রসিদ (২৮)।

তাদের পেকুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে অবস্থা গুরুতর হওয়ায় সাধন, রওশন আরা, সাজ্জাদ, বাবু ও ফরিদাকে চমেক হাসপাতালে পাঠানো হয় বলে জানান পেকুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মোহাম্মদ ছাবের।

এ সময় ঘটনাস্থলে যান পুলিশ টিমপ্রধান উপপরিদর্শক নাজমুল হোসেন ও পেকুয়া থানার ওসি (তদন্ত) কানন সরকার।

মুকুল/ডিসি

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm