ব্যবসায়ী খুন—ঢাকা পালিয়েও হলো না রক্ষা, ২ আসামিকে ধরল র‌্যাব

কর্ণফুলী উপজেলার চরলক্ষ্যায় ‘কিশোর গ্যাংয়ের’ ছুরিকাঘাতে নিহত ব্যবসায়ী জাহাঙ্গীর আলম (৪৫) হত্যা মামলার প্রধান আসামিসহ দুজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২১ ডিসেম্বর) দুপুরে ঢাকা থেকে র‌্যাব ও পু্লিশের যৌথ অভিযানে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

বিষয়টি আলোকিত চট্টগ্রামকে নিশ্চিত করেন কর্ণফুলী থানার সহকারী পুলিশ পরিদর্শক বেলায়েত হোসেন।

আরও পড়ুন: পরিবারের দাবি ‘খুন’—পুলিশ বলছে ‘চুরি করতে গিয়ে মৃত্যু’

গ্রেপ্তাররা হলেন- চরলক্ষ্যা খুদ্দ্যেরটেক এলাকার ৩ নম্বর ওয়ার্ডের মো. নাছিরের ছেলে মো. রুবেল প্রকাশ হাট্টা রুবেল (২২) ও তার বড় ভাই মো. ইয়াছিন (২৫)।

যোগাযোগ করা হলে কর্ণফুলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দুলাল মাহমুদ জানান, হত্যাকাণ্ডের পর থেকে আসামিরা পলাতক ছিল। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে ঢাকা থেকে দুজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বাকি আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

প্রসঙ্গত, গত শনিবার (১০ ডিসেম্বর) উপজেলার চরপাথরঘাটা এলাকায় ভাড়া নিয়ে চরলক্ষ্যা ইউনিয়নের খুদ্যারটেক এলাকার অটোরিকশা চালক ইয়াছিনের সঙ্গে ব্যবসায়ী জাহাঙ্গীরের কথা কাটাকাটি হয়। এ সময় অটোরিকশা চালক ইয়াছিন তার ভাই রুবেলকে মুঠোফোনে খবর দিলে সে দলবল নিয়ে ঘটনাস্থলে এসে জাহাঙ্গীরের পেটে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়দের সহযোগিতায় তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

আরও পড়ুন: মারধরে ছিঁড়ে যায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীর খাদ্যনালী, খুনের মামলায় গ্রেপ্তার আইনজীবী

ঘটনার ৯ দিন পর শনিবার (১৮ ডিসেম্বর) সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় জাহাঙ্গীরের মৃত্যু হয়।

এ ঘটনায় মঙ্গলবার (১৩ ডিসেম্বর) রাতে কর্ণফুলী থানায় ১০ জনকে আসামি করে মামলা করে নিহতের পরিবার।

ইমরান/আরবি

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm