‘বৌ শাশুড়ির যুদ্ধ’ পুত্রবধুর ছুরিতে শাশুড়ি নিহত

চট্টগ্রামের সাতকানিয়ায় পারিবারিক কলহের জেরে পুত্রবধূর এলোপাতাড়ি ছুরিকাঘাতে গুরুতর আহত শাশুড়ি রোকেয়া বেগম (৫৫) মারা গেছেন।

তিদিন চিকিৎসার পর বৃহস্পতিবার (২৪ জুন) সন্ধ্যা ৬টার দিকে চট্টগ্রাম নগরের আগ্রাবাদ মা ও শিশু হাসপাতালে তিনি মারা যান।

রোকেয়া বেগম উপজেলার খাগরিয়া ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ড মৈশামুড়া মুন্দার পাড়ার ইলিয়াছ চৌধুরীর স্ত্রী।

বর্তমানে পুত্রবধূ নাজমিন আক্তার (২৩) চট্টগ্রাম জেলা কারাগারে আছেন।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত সোমবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে পারিবারিক কলহের জেরে শাশুড়ি রোকেয়ার সাথে পুত্রবধূ নাজমিনের সাথে তর্কাতর্কির একপর্যায়ে ধাক্কাধাক্কির হয়। এ সময় নাজমিন উত্তেজিত হয়ে শাশুড়িকে ছুরি দিয়ে পেট ও হাতে এলোপাতাড়ি আঘাত করে গুরুতর জখম করে।

পরে পরিবারের লোকজন ও স্থানীয়রা শাশুড়ি রোকেয়াকে ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে প্রথমে চমেক হাসপাতালে ভর্তি করান। পরদিন মঙ্গলবার চমেক হাসপাতাল থেকে আগ্রাবাদ মা ও শিশু হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যায়। সেখানে ৩ দিন চিকিৎসাধীন থাকার পর বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬টায় তিনি মারা যান।

সাতকানিয়া থানার ওসি আনোয়ার হোসেন বলেন, খবর পেয়ে পুত্রবধূকে আটক করে থানায় নিয়ে আসা হয়। মঙ্গলবার আদালতের মাধ্যমে তাকে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

দিদারুল/আরবি

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm