বেগুন ক্ষেতে কৃষকের মরদেহ

আনোয়ারা উপজেলার বরুমচড়া ইউনিয়নের নলদিয়া বাঘমারাচর এলাকায় এক কৃষকের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

শুক্রবার (১১ জুন) সকালে স্থানীয়রা ক্ষেতে একটি মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে পুলিশে খবর দিলে তারা এসে লাশ উদ্ধার করে। এ সময় খবর পেয়ে পরিবারের লোকজনও ছুটে আসে ঘটনাস্থলে।

তবে কী কারণে ওই কৃষকের মৃত্যু হয়েছে এ বিষয়ে বিস্তারিত কিছু জানা যায়নি। প্রাথমিক কারণে হিসেবে ক্ষেতে কাজ করার সময় বিদ্যুৎপৃষ্টে তার মৃত্যু হতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারনা করছে পুলিশ।

নিহত কৃষকের নাম জামাল উদ্দিন। তিনি একই এলাকার মো. সোলায়মানের ছেলে।

নিহতের পিতা মো. সোলায়মান জানান, প্রতিদিনের মতো জামাল বেগুন ক্ষেতে যায় কাজ করতে। পরে স্থানীয়দের কাছে তার মরদেহ পরে থাকার খবর পেয়ে ছুটে যায়। পরিবারে মা-বাবাসহ স্ত্রী, এক ছেলে এবং এক মেয়ে রয়েছে তার।

আনোয়ারা থানার ওসি (তদন্ত) সাঈদ ওমর জানান, শুক্রবার সকালে বরুমচড়া নলদিয়া এলাকায় একটি মরদেহ পড়ে থাকার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশের টিম পাঠিয়ে উদ্ধার করা হয়। প্রাথমিক ধারনায় মনে হচ্ছে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে তার মৃত্যু হয়েছে। তবে ময়নাতদন্ত শেষে বিস্তারিত জানা যাবে।

নিহত জামাল উদ্দিনের পরিবারকে নগদ অর্থ তুলে দিচ্ছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ জোবায়ের আহমেদ

এদিকে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন আনোয়ারা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ জোবায়ের আহমেদ। তিনি নিহত জামাল উদ্দিনের পরিবারকে প্রশাসনের পক্ষ থেকে ৫০ হাজার টাকা দেন। এছাড়া স্থানীয় চেয়ারম্যান শাহাদাত হোসেন চৌধুরী দেন ১০ হাজার টাকা।

ইমরান/আরবি

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm