একদিনের ব্যবধানে বন্ধ হলো ২ ছাত্রীর বিয়ে

সীতাকুণ্ডে প্রশাসনের হস্তক্ষেপে দুই ছাত্রীর বাল্য বিয়ে বন্ধ হয়ে গেছে।

মঙ্গলবার (৩০নভেম্বর) সন্ধ্যা ও সোমবার রাতে বিয়ে দুটি বন্ধ করা হয় বলে জানা গেছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, ওইদিন সন্ধ্যায় উপজেলার বাঁশবাড়িয়া ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের বণিকপাড়ায় নবম শ্রেণির এক ছাত্রীর (১৫) বিয়ের প্রস্তুতি চলছিল। খবর পেয়ে সীতাকুণ্ড থানার ওসি (তদন্ত) সুমন বণিকের নেতৃত্বে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে বিয়ে বন্ধ করে। নিজেদের ভুল বুঝতে পেরে বাল্য বিয়ে বন্ধ করেন মেয়ের অভিভাবকরা।
এ সময় স্থানীয় ইউপি সদস্য মো. কামরুল হাসান উপস্থিত ছিলেন।

আরও পড়ুন : প্রেম করে বিয়ে, এরপর পরকীয়া—দুধের শিশু ফেলে পালাল পাষাণ মা

ওসি (তদন্ত) সুমন বণিক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, বাল্য বিয়ের বিষয়ে খবর পাওয়ার পর মেয়েটির অভিভাবকদের বাল্য বিয়ে নিয়ে আইনগত দিকগুলো সম্পর্কে বুঝিয়েছি। তারা নিজেদের ভুল বুঝতে পেরে বিয়ে বন্ধ করে দেন।

অপরদিকে সোমবার রাতে মাদামবিবিরহাট জেলেপাড়ার দশম শ্রেণির ছাত্রীর বিয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. শাহাদাত হোসেনের নির্দেশে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মো. নাজিম উদ্দিন বন্ধ করেন।

ইউএনও মো. শাহাদাত হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।

সালাউদ্দিন/ডিসি
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm