পারলেন না মেসি—বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে ফিফার বর্ষসেরা যাঁরা

রবার্ট লেভানডফস্কি। এই নামটা এখন থেকে সবাই মনে রাখবেন। মেসি-রোনালদো ছাড়া রোনালদিনহোর পর তিনিই টানা দ্বিতীয়বার ফিফা বর্ষসেরা হলেন।

এমন কৃতিত্ব গড়তে গিয়ে তিনি তালিকায় থাকা লিওনেল মেসি ও মো. সালাহকে পেছনে ফেলেছেন।

লেভানডফস্কি আর মেসি তালিকার সেরা দুইয়ে থাকবেন, সেটা সবার জানা হয়ে গিয়েছিল। তবে তাদের সঙ্গে তৃতীয়তে যোগ দিয়ে চমক দিয়েছিলেন সালাহ।

তবে সব হিসাব-নিকাশ শেষে লেভানডফস্কির মুকুটেই যুক্ত হলো আরেকটি পালক। মেসি কোপা শিরোপা জিতলেও লেভানডফস্কির ক্লাবভিত্তিক সাফল্য তাঁকে এগিয়ে দিয়েছে।

গত মৌসুমে লিগে ৪৩ গোল করে এক মৌসুমে সবচেয়ে বেশি গোলের রেকর্ড গড়েন লেভানডফস্কি। ভাঙেন কিংবদন্তী স্ট্রাইকার জার্ড মুলারের রেকর্ড। সবমিলিয়ে তিনি করেছেন ৬৯ গোল।

আরও পড়ুন : ব্যালন ডি’অর—লাকি সেভেনে মেসি

সোমবার (১৭ জানুয়ারি) রাত ১২টায় শুরু হয় ফিফা বর্ষসেরা পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠান।

আরো যাঁরা জিতেছেন পুরস্কার

মেয়েদের বর্ষসেরা 

বার্সেলোনার অ্যালেক্সিয়া পুতেয়াস জিতেছেন এবারের বর্ষসেরা নারী খেলোয়াড়ের সম্মান। এরআগে তিনি নারীদের ব্যালন ডি’অরও জিতেছিললেন। বার্সাকে ট্রেবল জেতানোয় এ পুরস্কার পেলেন তিনি।

আন্তর্জাতিক অঙ্গনে সর্বোচ্চ গোলদাতা

ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর হাতেই উঠল আন্তর্জাতিক ফুটবলে সর্বোচ্চ গোল করার পুরস্কার। ইউরোতে ৫ গোল করেন তিনি। এতেই আন্তর্জাতিক ফুটবলে ইরানের আলী দাইয়ির গড়া ১০৯ গোলের রেকর্ড ছুঁয়েছিলেন এ স্ট্রাইকার। জাতীয় দল পর্তুগালের জার্সিতে তিনি করেন ১১৫ গোল।

পুসকাস অ্যাওয়ার্ড

আর্জেন্টাইন তারকা এরিক লামেলা জিতেছেন পুসকাস অ্যাওয়ার্ড। দৃষ্টিনন্দন গোলের জন্য এই পুরস্কার দেওয়া হয়। তবে টটেনহ্যামে খেলাকালীন আর্সেনালের বিরুদ্ধে র‍্যাবোনা শতে অসাধারণ গোলটির জন্য তিনি পুরস্কারটি জিতেন।

ছেলেদের মধ্যে সেরা গোলরক্ষক

ছেলেদের সেরা গোলরক্ষকের পুরস্কার উঠেছে সেনেগালে এদুয়ার্দ মেন্দির হাতে।  চ্যাম্পিয়নস লিগে ১৭ ম্যাচের ১৩টিতেই কোনো গোল হজম করেনি তিনি। বায়ার্ন মিউনিখের গোলরক্ষক ম্যানুয়েল ন্যুয়ার আর পিএসজির জিয়ানলুইজি দোন্নারুম্মাকে পেছনে ফেলে এ পুরস্কার জিতে নেন তিনি।

ছেলেদের সেরা কোচ

জার্মান টমাস টুখেল জিতেছেন ছেলেদের দলের সেরা কোচের পুরস্কার। চেলসিকে চ্যাম্পিয়নস লিগ জেতানোয় এ পুরস্কার তাঁর হাত ওঠে। তিনি পেছনে ফেলেছেন ম্যানসিটির পেপ গার্দিওলা ও ইতালি জাতীয় দলের কোচ রবার্তো মানচিনিকে।

মেয়েদের সেরা কোচ

মেয়েদের দলের সেরা কোচের পুরস্কার উঠেছে এমা হেয়েসের হাতে। তিনি চেলসির নারী দলের কোচ হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

ফিফা ফেয়ার প্লে পুরস্কার

ডেনিশ প্লেমেকার ক্রিস্টিয়ান এরিকসেনের হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মাঠে পড়ে যাওয়ার কথা মনে আছে? সেই সময় যদি ডেনমার্ক অধিনায়ক সিমোন কায়ের এবং অন্যরা এসে দ্রুত তাঁকে প্রাথমিক চিকিৎসা না দিতেন তাহলে দৃশ্যপট অন্যরকম হতো। সেটির জন্যই ডেনমার্ক জিতেছে ফিফা ফেয়ার প্লে পুরস্কার।

এছাড়া ফিফা ফ্যান অ্যাওয়ার্ড জিতেছে ডেনমার্ক ও ফিনল্যান্ডের সমর্থকরা।

তথ্যসূত্র : ইন্ডিপেন্ডেন্টডটকোডটইউকে।

ডিসি
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm