দোষ স্বীকার করে জরিমানায় মুক্ত নারীসহ গ্রেপ্তার সেই ছাত্রলীগ নেতা

ছাত্রলীগ নেতা আব্দুল আল আহাদ ও তার পাঁচ সহযোগীকে ৩০০ টাকার জরিমানায় মুক্তি দিয়েছেন আদালত। জরিমানা আদায় না করলে দুদিনের কারাবাসের আদেশ দেন আদালত।

শুক্রবার (১০ ডিসেম্বর) বিকালে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট জুয়েল দেবের আদালত এ আদেশ দেন।

বিকেলে বিশেষ স্পেশাল আদালতে তাদের ছবি তুলতে গেলে আহাদের অনুসারীরা সাংবাদিকদের ‘দেখে নেওয়ার’ হুমকি দেয়।

আরও পড়ুন : মিষ্টান্ন বানিয়ে জরিমানা গুনল লন্ডন বেকারি

এর আগে আসামিদের নন-জিআর মামলায় আদালতে হাজির করে পুলিশ। আদালতে ছাত্রলীগ নেতা আহাদসহ সবাই নিজেদের দোষ স্বীকার করে ক্ষমা চান বলে আদালত সূত্রে জানা গেছে।

ছাত্রলীগ নেতা আবদুল আল আহাদ পাঁচলাইশ থানা ছাত্রলীগের সহসভাপতির দায়িত্ব ছিলেন। সে নগর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জাকারিয়া দস্তগীরের অনুসারী বলে জানা যায়।

আদালত সূত্রে জানা যায়, ছাত্রলীগ নেতা আবদুল আল আহাদসহ ১০ জনকে আজ শুক্রবার স্পেশাল আদালতে হাজির করা হয়। তাদের পাঁচলাইশ থানার নন-জিআর মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতে হাজির করা হলে আসামিরা দোষ স্বীকার করেন। আদালত প্রত্যেককে ৩০০ টাকা জরিমানা করে অনাদায়ে ২ দিনের কারাদণ্ড দেন।

প্রসঙ্গত, বৃহস্পতিবার (৯ ডিসেম্বর ) রাতে নাসিরাবাদ হাউজিং সোসাইটির ৫ নম্বর রোডের ১২ নম্বর বাসা থেকে ৪ নারীসহ আহাদকে গ্রেপ্তার করে পাঁচলাইশ থানা পুলিশ। মুরাদপুরের বাসিন্দা আহাদের বিরুদ্ধে পাঁচলাইশ ও চকবাজার থানায় একাধিক মামলাও রয়েছে। ফুটপাত ও গার্মেন্টসকেন্দ্রিক চাঁদাবাজিতে তিনি দীর্ঘদিন ধরে সক্রিয় বলে জানা গেছে।

এএইচ/ডিসি
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm