দলবেঁধে তরুণী ধর্ষণ—যুবককে পুলিশের পাকড়াও

ফটিকছড়ির ভুজপুরে এক তরুণীকে ধর্ষণের অভিযোগে আরিফ হোসেন (২৫) নামের এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

গ্রেপ্তার আরিফ দাঁতমারা ইউনিয়নের নতুন পাড়া এলাকার আবদুল হকের ছেলে।

গত সোমবার (২০ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় সোনাই গ্রামের রাবার বাগানে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় অভিযুক্ত আরিফসহ চার যুবক মিলে ওই তরুণীকে ধর্ষণ করেন।

ঘটনার দিন রাতেই ওই তরুণী বাদী হয়ে থানায় মামলা করেন। এতে চারজনকে আসামি করা হয়।

Thai Food

আসামিরা হলেন-দাঁতমারা ইউপির নতুনপাড়ার মো. আব্দুল হকের পুত্র আরিফ হোসেন (২৫), পূর্ব সোনাই গ্রামের হুদা মিয়ার পুত্র নুর মিয়া (২৫), ২ নম্বর ওয়ার্ডের ফরিদ মিয়ার পুত্র মো. জাকির হোসেন (৩৫) ও কড়ই বাগান এলাকার মৃত মনা মিয়ার পুত্র জাকির হোসেন (২২)। এদের মধ্যে পুলিশ আরিফকে গ্রেপ্তার করেন।

পুলিশ জানায়, কয়েক বছর আগে ধর্ষণের শিকার তরুণীর বিয়ে হয়। পরে উভয়ের বনিবনা না হওয়ায় ছাড়াছাড়ি হয়ে যায়। এরপর ওই তরুণী বাপের বাড়ি পানছড়িতে চলে আসেন। পরে আবার চট্টগ্রাম নগরের একটি গার্মেন্টসে চাকরি নেন। চাকরিতে  জোসনা নামের এক নারীর সাথে ওই তরুণীর পরিচয় হয়।

সোমবার সন্ধ্যায় জোসনায় তাকে পূর্ব সোনাই গ্রামে বেড়াতে নিয়ে আসেন। পরে রাতে ওই গ্রামের একটি রাবার বাগানে ফুসলিয়ে নিয়ে আসার পর আরিফসহ চার যুবক মিলে তাকে ধর্ষণ করে পালিয়ে যায়।

ভুজপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আছহাব উদ্দিন বলেন, ‘অভিযুক্ত আরিফকে গ্রেপ্তার করে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। বাকিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে। ধর্ষিত নারীকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

আক্কাছ/আরবি
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm