চট্টগ্রামে করোনা : মৃত্যুতে ‘লাগাম’—৩ শূন্যে শান্তি

চট্টগ্রামে করোনায় মৃত্যুর লাগাম টেনে ধরা গেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন দুই করোনা রোগী। অথচ এর আগেরদিন করোনায় মৃত্যু হয়েছিল ১০ জনের!

এদিকে শনাক্তে নগরের চেয়ে সাফল্য বেশি গ্রামে। তিন উপজেলায় গত ২৪ ঘণ্টায় পাওয়া যায়নি কোনো করোনা রোগী! শূন্য শনাক্তের এই তিন উপজেলা হলো- পটিয়া, চন্দনাইশ ও বাঁশখালী।

মঙ্গলবার (৩১ আগস্ট) সিভিল সার্জন কার্যালয়ের প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, গত ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামে ১ হাজার ৫৮৩ নমুনা পরীক্ষায় ২০৬ জনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। নমুনা পরীক্ষার তুলনায় সংক্রমণের হার ১৩ দশমিক ০১ শতাংশ। নতুন শনাক্তদের মধ্যে ১২১ জন নগরের এবং ৮৫ জন বিভিন্ন উপজেলার বাসিন্দা।

আরও পড়ুন: ‘কপালে চোখ’—করোনায় চট্টগ্রামে ‘মৃত্যুতে’ হঠাৎ বড় লাফ 

গত ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ল্যাবে ১২৭ নমুনা পরীক্ষায় ২৬ জন, বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ট্রপিক্যাল এন্ড ইনফেকশাস ডিজিজেস (বিআইটিআইডি) ল্যাবে ৫৬৫ নমুনা পরীক্ষায় ৮৬ জন এবং চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ ল্যাবে ১৭৪ নমুনা পরীক্ষায় ১৭ জনের শরীরে করোনার অস্তিত্ব মিলেছে।

এছাড়া শেভরন ক্লিনিক্যাল ল্যাবরেটরিতে ৩১৪ নমুনা পরীক্ষায় ১৪ জন, মেডিকেল সেন্টার হাসপাতাল ল্যাবে ১১ নমুনা পরীক্ষায় ৫ জন, ইপিক হেলথ কেয়ার ল্যাবে ৬৫ নমুনা পরীক্ষায় ১৮ জন এবং  ইমপেরিয়াল হাসপাতাল ল্যাবে ৭২ নমুনা পরীক্ষায় ৫ জনের দেহে করোনার জীবাণু পাওয়া যায়।

এদিন জেনারেল হাসপাতালের রিজিওনাল টিবি রেফারেল ল্যাবরেটরি (আরটিআরএল) ল্যাবে করোনার কোনো নমুনা পরীক্ষা হয়নি। কোথাও হয়নি এন্টিজেন টেস্টও।

চট্টগ্রামে গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্তদের মধ্যে ১২১ জন নগরের এবং ৮৫ জন উপজেলার বাসিন্দা। একই সময়ে মারা যাওয়া দুই করোনা রোগীই উপজেলার বাসিন্দা।

আলোকিত চট্টগ্রাম

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm