কক্সবাজারে গণধর্ষণ : ওসিসিতে সেই নারী, মামলা তদন্ত করবে ট্যুরিস্ট পুলিশ

ঢাকা থেকে কক্সবাজার বেড়াতে আসা গৃহবধূকে গণধর্ষণের ঘটনায় ৪ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করা হয়েছে। এছাড়া আজ্ঞাত আসামি করা হয়েছে আরো ২/৩ জনকে।

বৃহস্পতিবার (২৩ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় কক্সবাজার সদর মডেল থানায় মামলাটি দায়ের করেন ভুক্তভোগীর স্বামী।

মামলার আসামিরা হলেন- আশিকুল ইসলাম আশিক, ইসরাফিল জয় ওরফে জয়া, মেহেদী হাসান বাবু এবং হোটেল জিয়া গেস্ট ইনের ম্যানেজার রিয়াজ উদ্দিন ছোটন। এদের মধ্যে ছোটনকে আটক করেছে র‌্যাব। বাকি তিন আসামি পলাতক। তারা শহরের বাহারছড়ার বাসিন্দা।

আরও পড়ুন : কক্সবাজারে গণধর্ষণ—৩ ধর্ষকই বাহারছড়ার, হোটেল ম্যানেজার আটক

আটক ছোটনকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ শেষে কক্সবাজার সদর থানা হস্তান্তর করা হবে বলে জানা গেছে।

কক্সবাজার সদর হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) শাহীন মো. আবদুর রহমান চৌধুরী বলেন, ওই নারীকে ওসিসিতে রাখা হয়েছে। তার পরীক্ষা-নিরীক্ষা চলছে। হাসপাতালে তাকে দুই থেকে তিনদিন রাখা হতে পারে।

কক্সবাজার সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তদন্ত বিপুল চন্দ্র দে বলেন, ধর্ষণের শিকার গৃহবধূর স্বামী বাদি হয়ে ৪ জনের নাম উল্লেখ করো এবং অজ্ঞাতনামা ২/৩ জনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করেছেন। মামলাটির তদন্তভার দেওয়া হয়েছে কক্সবাজার ট্যুরিস্ট পুলিশকে।

উল্লেখ্য, কক্সবাজারের ‘জিয়া গেস্ট ইন’ নামের হোটেলটিতে বুধবার (২২ ডিসেম্বর) রাতে স্বামী-সন্তানকে হত্যার ভয় দেখিয়ে ওই গৃহবধূকে ধর্ষণ করা হয়। পরে র‌্যাবের একটি দল গিয়ে তাকে উদ্ধার করে।

বলরাম/ডিসি
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm