কক্সবাজারে অসহায় পর্যটকরা, অভিযোগ গেল জেলা প্রশাসকের কাছে

টানা তিনদিনের সরকারি ছুটিতে পর্যটকের ঢল নেমেছে কক্সবাজারে। আর এই সুযোগে বিভিন্ন হোটেল-রেস্টুরেন্টে খাবারের গলাকাটা দাম নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। সেই সঙ্গে বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে রুম ভাড়াও। গাড়ি ভাড়া থেকে শুরু করে সবকিছুর জন্য পর্যটকদের গুনতে হচ্ছে দুই-তিন গুণ বেশি টাকা।

১ হাজার টাকা রুমের ভাড়া বেড়ে ৫ হাজারে গিয়ে ঠেকেছে বলে অভিযোগ পর্যটকদের।

বৃহস্পতিবার (১৬ ডিসেম্বর) থেকে তিন দিনের টানা ছুটিতে বিশ্বের দীর্ঘতম সমুদ্রসৈকত কক্সবাজারে অবস্থান করছেন পাঁচ লাখেরও বেশি পর্যটক। আর এই সুযোগ কাজে লাগিয়ে হোটেল-মোটেলগুলো অস্বাভাবিক হারে ভাড়া আদায় করছে।

আরও পড়ুন : স্ত্রী-কন্যাকে রেখে কক্সবাজার বেড়াতে গিয়ে লাশ যুবক, পুলিশ হেফাজতে তরুণী

কক্সবাজারে আসা বেশ কয়েকজন পর্যটক জানান, রেস্টুরেন্টে যে খাবারের দাম অন্য সময়ে ১৫০ থেকে ২০০ টাকা, বর্তমানে তা রাখা হচ্ছে ৩০০ থেকে ৪০০ টাকা পর্যন্ত। ৪০ টাকার গাড়ি ভাড়া গুনতে হচ্ছে ১৫০ টাকা। আর হোটেল ব্যবসায়ীরাতো ১ হাজারের রুম ভাড়া ৪ থেকে ৫ হাজার টাকা পর্যন্ত নিচ্ছেন। বলতে গেলে এখানে ঘুরতে এসে এসব সিন্ডিকেটের কাছে জিম্মি পর্যটকরা।

এসব অনিয়মের বিরুদ্ধে অনেক পর্যটক জেলা প্রশাসনের কাছে অভিযোগ দেওয়া শুরু করেছেন।

যোগাযোগ করা হলে জেলা প্রশাসক মো. মামুনুর রশীদ আলোকিত চট্টগ্রামকে বলেন, যেসব হোটেল এবং রেস্টুরেন্টে বেশি টাকা নেওয়া হচ্ছে তাদের বিরুদ্ধে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান চলছে। জরিমানাও করা হচ্ছে।

এদিকে তিনদিনের এই ছুটির বাইরেও হোটেলগুলো পর্যটকদের কাছ থেকে আগাম বুকিং পাচ্ছে। পর্যটকরা আগামী ২৪ ও ২৫ ডিসেম্বর, ৩০-৩১ ডিসেম্বর এবং ১ জানুয়ারির জন্যও বুকিং দিচ্ছেন বলে জানা গেছে।

ডিসি
8 মন্তব্য
  1. Manirul islam বলেছেন

    We have to ensure mobile court in respective cases and every hotel and resort must show their fair and number of totall room in front of public and media..so that tourist can understand the situation.

    1. নাদিদ এর বাপ বলেছেন

      এরপর এমন ছুটির ফাঁদে ধরা দিতে যারাই যাবেন,
      তারা অবশ্যই তাবু, পোর্টেবল কমোড, আর সাথে হাড়ি পাতিল নিয়ে যাবেন।
      সখ পুরণ হবে টাকাও বাঁচবে

  2. গোলাম মোস্তফা বলেছেন

    তাঁতে হোটেল মোটেল পর্যটন সংশ্লিষ্টদের বাল ছেঁড়া গেলো ?

  3. মোহাম্মদ আজিজুল আলম বলেছেন

    হুজুক বা চেতনা দিয়ে যে কাজ করলে কষ্ট ভোগ করতে হয় আর বিবেক দিয়ে কাজ করলে শান্তি পাওয়া যায়।

  4. সেলিম বলেছেন

    এরপর থেকে পর্যটকরা চিড়া আর গুড় সাথে নিবে , তখন এক বোতল পানি হবে এক হাজার টাকা ।

  5. তালহা বলেছেন

    বাহ্, কেয়া সিন হে
    বাহ্, বাহ্

  6. তালহা বলেছেন

    বাহ্, কেয়া সিন হে
    বাহ্, বাহ্

  7. Mamun Rashid বলেছেন

    এভাবে গলাকাটা মূল্য হলে একটা সময়ে পর্যটক শূন্য হবে কক্সবাজার। তারচেয়ে নিরাপদ জায়গার সন্ধান করতে বাধ্য হবে পর্যটকরা।

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm