দুর্নীতি মামলায় ‘ওসি প্রদীপের’ বিরুদ্ধে চার্জ গঠন, মিলল না জামিন

ওসি প্রদীপ কুমার দাশ ও তাঁর স্ত্রী চুমকির বিরুদ্ধে দুদকের করা সম্পদ গোপনের মামলার বিচার শুরুর আদেশ দিয়েছেন আদালত। একইসঙ্গে প্রদীপের জামিন আবেদন নামঞ্জুর করেন বিচারক।

বুধবার (১৫ ডিসেম্বর) দুপুরে চট্টগ্রাম বিভাগীয় বিশেষ জজ মুন্সী আবদুল মজিদের আদালত এই আদেশ দেন। এসময় প্রদীপ কুমার দাশ আদালতে উপস্থিত থাকলেও স্ত্রী চুমকি পলাতক রয়েছেন।

আরও পড়ুন: ওসি প্রদীপের জামিন মেলেনি, স্ত্রী চুমকির বিরুদ্ধেও গ্রেপ্তারি পরোয়ানা

দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) আইনজীবী মাহমুদুল হক বলেন, আজ (বুধবার) প্রদীপ কুমার দাশ ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে করা অবৈধ সম্পদ অর্জন মামলায় আদালত শুনানি শেষে বিচার কার্যক্রম শুরুর আদেশ দিয়েছেন। এছাড়া প্রদীপের জামিন আবেদন নামঞ্জুর করেছেন বিচারক। আগামী ১৭ জানুয়ারি সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু হবে।

গত ৬ ডিসেম্বর চট্টগ্রামের সিনিয়র স্পেশাল জজ ঈসমাইল হোসেনের আদালতে মামলাটির শুনানি হয়েছিল।

এর আগে গত ২২ নভেম্বর সকালে চট্টগ্রাম বিভাগীয় বিশেষ জজ মুন্সী আবদুল মজিদের আদালতে প্রদীপের মামলার চার্জ গঠন পিছিয়েছিল।

গত ২৬ জুলাই (দুদক) সমন্বিত জেলা কার্যালয় চট্টগ্রাম-২ এর সহকারী পরিচালক মো. রিয়াজ উদ্দিন এ মামলায় অভিযোগপত্র দাখিল করেন। তাদের বিরুদ্ধে ৩ কোটি ৯৫ লাখ ৫ হাজার ৬৩৫ টাকার জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জন, সম্পদের তথ্য গোপন ও মানি লন্ডারিংয়ের অভিযোগ আনা হয়েছে। গত ১ সেপ্টেম্বর অভিযোগপত্রের ওপর শুনানি হয়।

আরও পড়ুন: রাষ্ট্রের কাছে থাকবে ওসি প্রদীপ ও চুমকির সম্পদ

২৯ জুন দুপুরে চট্টগ্রামের সিনিয়র স্পেশাল জজ ও মহানগর দায়রা জজ শেখ আশফাকুর রহমানের আদালত প্রদীপ কুমার দাশের অবৈধ সম্পদ দেখভালের দায়িত্ব কক্সবাজার ও চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসককে দেন।

২০ সেপ্টেম্বর মামলার তদন্ত কর্মকর্তার আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে চট্টগ্রাম মহানগর সিনিয়র স্পেশাল দায়রা জজ শেখ আশফাকুর রহমানের আদালত প্রদীপ ও তার স্ত্রীর সম্পত্তি ক্রোকের নির্দেশ দেন।

আরবি

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm