অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূর মৃত্যু ঘিরে রহস্য, স্বামী-শ্বশুর আটক

 

মিরসরাইয়ে সেলিনা আক্তার মনি (৩৫) নামে এক গৃহবধূর গলায় ফাঁস লাগানো ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

শুক্রবার (২১ মে) সকালে উপজেলার সাহেরখালী ইউনিয়নের দক্ষিণ মঘাদিয়া ঘোনা এলাকার সাতভাইয়া বাড়ির রবিউল হোসেনের রান্নাঘর সেলিনার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। সে মঘাদিয়া ইউনিয়নের হাসিমনগর গ্রামের মকবুল আহম্মেদ বাড়ির মৃত সফিউল আলমের মেয়ে।

এ ঘটনায় সেলিনার স্বামী আলতাফ হোসেন (৩৮) ও শ্বশুর রবিউল হোসেনকে আটক করা হয়েছে।

সেলিনার মা মনোয়ারা বেগম বলেন, আমার মেয়ে বিয়ের পর থেকে ওই বাড়িতে শান্তি পায়নি। স্বামী-শ্বশুর মিলে আমার মেয়ের উপর অমানুষিক নির্যাতন করতো। আমার মেয়ে ৩ মাসের অন্তঃসত্ত্বা ছিল। শুক্রবার সকালে ওই এলাকার মেম্বার আমার মেয়ে মারা গেছে বলে খবর দেয়। আমি থানায় মামলা করবো, আমার মেয়েকে যারা খুন করেছে আমি তাদের শাস্তি চাই।

স্থানীয় মঘাদিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর হোসাইন মাস্টার বলেন, খবর পেয়ে শুক্রবার সকালে আমি ঘটনাস্থলে যাই। গিয়ে যে অবস্থায় লাশ দেখেছি তাতে আত্মহত্যা মনে হয়নি। তারপরও ময়নাতদন্ত রিপোর্ট আসলে বোঝা যাবে হত্যা নাকি আত্মহত্যা।

মিরসরাই থানার অফিসার ইনচার্জ মজিবুর রহমান বলেন, গৃহবধুর লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করেছি। মামলার প্রস্তুতি চলছে। তবে ময়নাতদন্ত রিপোর্ট আসার পর বলা যাবে হত্যা নাকি আত্মহত্যা।

ডিসি

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm