হিন্দুদের তীর্থস্থানে নামাজ পড়ে ‘উস্কানিমূলক স্ট্যাটাস’, আটক সেই যুবক

হিন্দুদের পবিত্র তীর্থস্থান সীতাকুণ্ডের চন্দ্রনাথ পাহাড়ে আজান দিয়ে উস্কানিমূলক স্ট্যাটাস দেওয়া সেই যুবকসহ দুইজনকে আটক করেছে সীতাকুণ্ড থানা পুলিশ।

এর আগে মুহাম্মদ শিব্বির বিন নজির নামের ফেসবুক আইডিতে সেই যুবক কয়েকটি ছবি ও একটি ভিডিও পোস্ট দেন। এরপর লেখেন— ‘চন্দ্রনাথ পাহাড়ের চূড়ায় উঠে আজান দিলাম। আলহামদুলিল্লাহ। ইনশাআল্লাহ অতিশীঘ্রই সেখানে ইসলামের পতাকা উড়বে।’

পোস্টটি ভাইরাল হওয়ার পর সমালোচনার ঝড় উঠে। উস্কানিমূলক এ পোস্টে হিন্দুদের মধ্যে দেখা দেয় উত্তেজনা। সেই যুবককে দ্রুত আটক করে আইনের আওতায় আনার দাবি উঠে বিভিন্ন সামাজিক মাধ্যমে। এ বিষয়ে সরকারের জরুরি হস্তক্ষেপও কামনা করা হয়।

আরও পড়ুন: দুর্গাপূজায় বাধা, হিন্দুদের হাজারো লোক ঘেরাও করল কৈবল্যধাম মন্দির

সীতাকুণ্ড থানা সূত্রে জানা যায়, এই ঘটনায় দুজনকে আটক করা হয়েছে এবং তাদের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলার প্রক্রিয়া চলছে।

এদিকে ওই ঘটনার পর মন্দিরের নিরাপত্তায় সীতাকুণ্ড স্রাইন কমিটির পক্ষে বেশকিছু পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে।

কমিটির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট চন্দন দাশ জানান, মন্দিরের নিরাপত্তার স্বার্থে চন্দ্রনাথ মন্দিরসহ সব মন্দিরের প্রবেশমুখে গেইট স্থাপন, নিরাপত্তাপ্রহরী নিয়োগ এবং ‘মৃত্যুঞ্জয়ী মিত্র’ স্মৃতিস্তম্ভের আগে দর্শনার্থীদের পরিচয় রেজিস্ট্রারে অন্তর্ভুক্তের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

আলোকিত চট্টগ্রাম

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm