রান্নাঘরের আগুনে ছাই ২২ পরিবারের স্বপ্ন

বাঁশখালীতে ভয়াবহ আগুন পুড়ে গেছে ২২ বসতঘর। আগুনে সবকিছু হারিয়ে এখন খোলা আকাশের নিচে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের সদস্যরা।

বুধবার (১৯ জানুয়ারি) বেলা সাড়ে ১২টায় শীলকূপ ইউনিয়নের মহব্বত আলীপাড়ায় ভয়াবহ এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। তবে এতে হতাহতের কোনো খবর পাওয়া যায়নি।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, দুপুরে রান্না করার সময় জনৈক ব্যক্তির রান্নাঘর থেকে সৃষ্ট আগুন মুহূর্তের মধ্যে ছড়িয়ে পড়ে ঘনবসতির মহব্বত আলীপাড়ায়। ওই সময় পুরুষরা অনেকেই ছিলেন ঘরের বাইরে।

বাঁশখালী ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার আজাদুল ইসলাম আলোকিত চট্টগ্রামকে বলেন, প্রাথমিক তদন্তে রান্নাঘর থেকে অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত বলে ধারণা করা হচ্ছে। অধিকাংশ বাড়ি ছন ও বেড়ার তৈরি হওয়ায় দ্রুত পুড়ে গেছে।

আরও পড়ুন: মুহূর্তের আগুনে দুই ভাই হারালেন ২০ লাখ টাকা

জানা গেছে, ওই এলাকার বেশিরভাগ পরিবার কৃষিকাজ করে সংসার চালায়। আগুনে অনেক পরিবারের বিপুল পরিমাণ ধান পুড়ে গেছে। প্রায় দেড় কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতির ধারণা করছেন ক্ষতিগ্রস্তরা।

এদিকে অগ্নিকাণ্ডের পর ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন বাঁশখালী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সাইদুজ্জামান ও শীলকূপ ইউপি চেয়ারম্যান মো. মহসিন। এ সময় উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ২২ পরিবারের প্রত্যেককে নগদ আড়াই হাজার টাকা ও ২টি করে কম্বল বিতরণ করা হয়। এছাড়া চেয়ারম্যান মো. মহসিন ব্যক্তিগত তহবিল থেকে ২২ পরিবারকে ২২ হাজার টাকা দেন।

যোগাযোগ করা হলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সাইদুজ্জামান আলোকিত চট্টগ্রামকে বলেন, আগুনে ক্ষতিগ্রস্তদের প্রাথমিক সহায়তা দেওয়া হয়েছে। পরে সরকারিভাবে সহায়তার জন্য ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হবে।

উজ্জ্বল/আরবি

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm