যৌতুকের চাপে গৃহবধূর আত্মহত্যা, স্বামী পলাতক

সীতাকুণ্ডে এক গৃহবধূর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ । ঘটনার পর থেকে স্বামী পলাতক।

শনিবার (১৯ জুন) রাত ১০টার দিকে উপজেলার বাড়বকুণ্ড ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের দক্ষিণ নড়ালিয়া গ্রামের ঘর থেকে ওই গৃহবধুর মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহত গৃহবধূর নাম রিমা আক্তার (১৯)। রিমা একই ইউনিয়ন পরিষদের চকিদার মো. আবুল কালামের মেয়ে। রিমার স্বামী পেশায় একজন ট্রাকচালক। তাদের ৬ মাস বয়সী একজন কন্যা সন্তান রয়েছে।

পরিবারের দাবি যৌতুকের জন্য রিমাকে স্বামী আরিফুল করিম রাকিব হত্যা করেছে।

স্থানীয় ইউপি সদস্য মো. একরাম হোসেন বলেন, রিমার ও আরিফুলের গ্রামের বাড়ি একই গ্রামে হরেও তারা বাড়বকুণ্ড নডালিয়া গ্রামের একটি ভাড়া বাসায় থাকতেন। ঘটনার দিন সন্ধ্যায় রাকিব তার মেয়েকে পাশের একটি বাড়িতে রেখে আসেন । ওই দিন রাতে রিমার বাবা ঘরে ঢুকে মেয়ের ঝুলন্ত মরদেহ দেখে থানা পুলিশকে জানালে পুলিশ এসে রিমার মরদেহ উদ্ধার করে।

বাড়বকুণ্ড ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ছাদাকাত উল্লাহ মিয়াজী বলেন, ‘রিমা আক্তারের স্বামী আরিফুল করিম রাকিব পেশায় একজন ট্রাক চালক। রিমার বাবা জানান, বিয়ের পর থেকে স্বামী যৌতুকের জন্য চাপসহ প্রায়সময়ই মারধর করতো।’

সীতাকুণ্ড মডেল থানার ওসি (তদন্ত) সুমন বনিক বলেন, ‘গলায় ফাঁস দেওয়া অবস্থায় এক গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে । লাশ ময়নাতদন্তের জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।’

সালাউদ্দিন/আরবি

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm