বৃদ্ধা মায়ের অপরাধ আম খেয়েছিলেন, পাষণ্ড সন্তানরা ভেঙে দিলেন হাত

আম খাওয়ার অপরাধে পাষণ্ড সন্তানেরা ভেঙে দিয়েছেন বৃদ্ধা মায়ের হাত। এ ঘটনায় সন্তানদের বিচার চেয়ে আহত মা হাছিনা আক্তার (৬৫) বাদি হয়ে থানায় অভিযোগ দিয়েছেন।

মঙ্গলবার (২৫ মে) রাত সাড়েটার দিকে উপজেলার লক্ষ্যারচর ইউনিয়নের উত্তর লক্ষ্যারচর গ্রামে ঘটনা ঘটে। হাছিনা আক্তার ওই এলাকার মৃত বদরুদ্দোজার স্ত্রী।

ঘটনার পর স্থানীয় লোকজন তাঁকে উদ্ধার করে চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করান।

চকরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শাকের মো. যুবায়ের বলেন, অভিযোগ পাওয়ার পরই ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়। তবে অভিযুক্তরা পালিয়ে যাওয়ায় কাউকে আটক করা যায়নি। তাদের ধরতে অভিযান অব্যাহত আছে।

লিখিত অভিযোগে জানা যায়, স্বামী মারা যাওয়ার পর নিজ বসতঘরে বসবাস করে আসছিলেন হাছিনা আক্তার। ছেলেমেয়ে কেউ তার দেখাশোনা করেন না। ছেলে নাজেম উদ্দিন মাঝেমধ্যে দেখাশোনা করলেও নানাসময় অশ্রাব্য ভাষায় গালিগালাজ করেন।  

মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে বাড়ির গাছ থেকে আম পেড়ে খাওয়া নিয়ে বড় ছেলে শাহাবউদ্দিনের সঙ্গে মায়ের বাকবিতণ্ডা হয়। একপর্যায়ে ছেলে ক্ষিপ্ত হয়ে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে। এতে মা হাছিনা আক্তার প্রতিবাদ করলে ছোট ছেলে নেজাম উদ্দিন, বাবুল মেয়ে ইয়াছমিন আক্তার মিলে লোহার রড দিয়ে আঘাত করলে বৃৃৃৃৃৃৃদ্ধার হাত ভেঙে যায়।

মুকুল/আরবি

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm