বিকেল নামতেই বিধিনিষেধের দড়িতে ঢিল!

চট্টগ্রামসহ সারাদেশে আবারও শুরু হয়েছে ‘কঠোর বিধিনিষেধ’। শুক্রবার (২৩ জুলাই) শুরু হওয়া বিধিনিষেধ চলবে ৫ আগস্ট পর্যন্ত।

এবারের ‘কঠোর বিধিনিষেধে’র প্রথমে দিন শুক্রবার (২৩ জুলাই) সকালে নগরে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা ছিলেন বেশ কড়া অবস্থানে। তবে বেলা গড়িয়ে বিকেল হতেই ঢিল পড়ে কড়াকড়িতে। রাস্তা, বাজার, খেলার মাঠে বাড়ে মানুষের সংখ্যা।

সরেজমিন কাপ্তাই রাস্তা মাথা এলাকায় দেখা যায়, মাছ ও সবজি বিক্রেতারা রাস্তার উপরেই বসেছেন বাজার নিয়ে। ‘বাজার’ জুড়ে ছিল ক্রেতা-বিক্রেতার ভিড়। এসময় স্বাস্থ্যবিধি মানতে দেখা গেছে হাতেগোনা মানুষকে।

শুধু বাজারই নয়। বিকেলে নগরের চকবাজার এলাকার প্যারেড মাঠে খেলাধুলায় মেতে ওঠে কিশোর-তরুণরা। এসময় অনেকের মুখেই ছিল না মাস্ক।

এছাড়া অলি-গলি থেকে প্রধান রাস্তা, অহেতুক ঘোরাঘুরি করতে দেখা গেছে অনেককে।

আরও পড়ুন: চট্টগ্রামে বাড়ছে ‘সংকট’, মোটা টাকায়ও মিলছে না আইসিইউ

এরআগে সকাল থেকেই নগরে বেশ কঠোর অবস্থানে ছিলেন আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও সেনা সদস্যরা। এসময় সেনা সদস্যদের প্রশ্নের মুখোমুখি হতে হয়েছে অনেক যাত্রী ও পথচারীকে।

তবে বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে নগরের অধিকাংশ জায়গাতেই প্রশাসনের তৎপরতা তেমন চোখে পড়েনি।

উল্লেখ, এবারের লকডাউনে সরকারি-বেসরকারি অফিস ও গণপরিবহনের সঙ্গে শিল্প কারখানাও বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তবে জরুরি পরিষেবায় নিয়োজিত পরিবহন (ট্রাক, লরি, কাভার্ডভ্যান, মরদেহ পরিবহন), ওষুধের দোকান ও গণমাধ্যম লকডাউনের আওতামুক্ত রয়েছে।

এছাড়া সাপ্তাহিক ছুটির দিন ছাড়া ব্যাংকে সকাল ১০টা থেকে দুপুর দেড়টা পর্যন্ত লেনদেন করা যাবে বলে বাংলাদেশ ব্যাংকের এক প্রজ্ঞাপনে জানানো হয়েছে।

বিধিনিষেধ চলাকালে রেল ও সড়ক যোগাযোগ বন্ধ থাকলেও চালু আছে আন্তর্জাতিক ফ্লাইট। বিদেশগামী যাত্রীরা ফ্লাইটের টিকিট দেখিয়ে গন্তব্যে যেতে পারবেন। এছাড়া যারা টিকা নিবেন, তারাও টিকা কার্ড দেখিয়ে চলাচল করতে পারবেন।

ডিসি/জেডএইচ
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm