‘গলাকাটা দাম’ করোনায় অক্সিজেন বেচা চলছে ৫ গুণ বেশিতে

মিরসরাইয়ে করোনা পরিস্থিতিকে পুঁজি করে তিন থেকে পাঁচ গুণ পর্যন্ত বেশি দামে বিক্রি হচ্ছে অক্সিজেন সিলিন্ডার। একইসঙ্গে মানবদেহের জন্য ক্ষতিকর ইন্ডাস্ট্রিয়াল অক্সিজেন মুমূর্ষু রোগীদের কাছে চড়া দামে বিক্রির অভিযোগও রয়েছে।

এমন সব অভিযোগের প্রেক্ষিতে বারইয়ারহাট পৌরসভায় একটি অননুমোদিত অক্সিজেন সিলিন্ডারের দোকানে অভিযান চালিয়ে জরিমানা করেছেন উপজেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালত।

বৃহস্পতিবার (২৯ জুলাই) বিকাল ৫টায় পৌরসভার চিনকি আস্তানা এলাকার সৈয়দ আলীম উদ্দিন মার্কেটের আব্দুর রহিম পরিচালিত সামিয়া ট্রেডিংয়ে এ অভিযান চালানো হয়।

এসময় ট্রেড লাইসেন্স, ফায়ার সার্ভিসের ছাড়পত্র ও দাম নির্ধারিত না থাকায় সামিয়া ট্রেডিংয়ের স্বত্বাধিকারী আব্দুর রহিমকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। এছাড়া একটি অক্সিজেন সিলিন্ডার জব্দ করা হয়।

বারইয়ারহাট পৌরসভার মেয়র রেজাউল করিম খোকন বলেন, বৃহস্পতিবার সকালে বারইয়ারহাট পৌরসভার কিছু বাসিন্দা আমাকে অভিযোগ করেন সামিয়া ট্রেডিং চড়া দামে অক্সিজেন সিলিন্ডার বিক্রি করছে। আমি তাৎক্ষণিক বিষয়টি মিরসরাই উপজেলা প্রশাসনকে জানাই।

তিনি বলেন, এটি একটি অবৈধ অক্সিজেন সিলিন্ডারের দোকান। পৌরসভার কাছ থেকে তারা অনুমতি নেয়নি।

মিরসরাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মিনহাজুর রহমান বলেন, বারইয়ারহাট পৌরসভায় সামিয়া ট্রেডিংয়ের মালিক আব্দুর রহিম চড়া দামে অক্সিজেন সিলিন্ডার বিক্রি করছেন- এমন অভিযোগের ভিত্তিতে বিকাল ৫টায় অভিযান চালানো হয়। এছাড়া এগুলো ইন্ডাস্ট্রিয়াল গ্রেড অক্সিজেন নাকি মেডিকেল গ্রেড অক্সিজেন তা পরীক্ষার জন্য একটি অক্সিজেন সিলিন্ডার জব্দ করে ল্যাবে পাঠানো হয়েছে। যদি ইন্ডাস্ট্রিয়াল গ্রেড অক্সিজেন হয়, তাহলে পরবর্তীতে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

তিনি আরও বলেন, বারইয়ারহাট পৌরসভার ট্রেড লাইসেন্স, ফায়ার সার্ভিসের ছাড়পত্র ও দাম নির্ধারিত না থাকায় সামিয়া ট্রেডিংয়ের স্বত্বাধিকারী আব্দুর রহিমকে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা ভূমি কর্মকর্তা সুবল চাকমা ও বারইয়ারহাট পৌর মেয়র রেজাউল করিম খোকন।

এএ
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm