‘কথা কাটাকাটি’—ছুরিকাঘাতে রক্তাক্ত যুবক হাসপাতালে

ফটিকছড়িতে প্রতিবেশীর হাতে ছুরিকাঘাতের শিকার হয়েছেন মুহাম্মদ রুবেল নামের এক মৎস্য খামারি। উপজেলার রোসাংগিরি ইউনিয়নের সোবহান মোল্লার বাড়িতে বুধবার (১১ আগস্ট) এ ঘটনা ঘটে।

বর্তমানে রুবেল গুরুতর আহত অবস্থায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন আছেন। তিনি ওই এলাকার মোহাম্মদ জানে আলমের ছেলে।

তরুণ উদ্যোক্তা রুবেল দীর্ঘদিন ধরে নিজ বাড়ির পাশে ১০ একর কৃষি জমিতে চাষাবাদ এবং বায়োফ্লক পদ্ধতিতে মাছ চাষ করছেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, রুবেল সকালে মৎস্য প্রকল্প ও কৃষিকাজে নিয়োজিত শ্রমিকদের দেখভাল করছিলেন। এ সময় তাঁর খামারের কয়েকটি গরু পাশের একটি পরিত্যক্ত ঘরে বেঁধে রাখেন। প্রতিবেশী তফাজ্জল হোসনে ও তার ছেলে মুহাম্মদ ইব্রাহিম এসে গরু কেন বেঁধেছে জানতে চান। ইব্রাহিমের ছেলে ফাহিম এ সময় দেশি অস্ত্র নিয়ে রুবেলের ওপর হামলা চালায়। কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে রুবেলকে ছুরিকাঘাত করেন ফাহিম। তাঁর চিৎকারে লোকজন এসে তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ভর্তি করান।

আরও পড়ুন: ঝগড়া থামাতে গিয়ে ছেলের ছুরিকাঘাতে বাবা খুন

রুবেল বলেন, কোনো কিছু বুঝে ওঠার আগেই তারা তিনজন আমাকে হত্যার উদ্দেশ্যে ছুরিকাঘাত করেন। লাঠিসোটা দিয়ে মাথা ফাটিয়ে দেন। এলাকাবাসী আমাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করান।

ফটিকছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. রবিউল ইসলাম বলেন, থানায় খামারিকে হত্যাচেষ্টার অভিযোগ দেওয়া হয়েছে। আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

আক্কাছ/ডিসি

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm