ওসি প্রদীপের জামিন মেলেনি, স্ত্রী চুমকির বিরুদ্ধেও গ্রেপ্তারি পরোয়ানা

দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) মামলায় বরখাস্ত টেকনাফ থানার সাবেক ওসি প্রদীপ কুমার দাশের জামিন আবেদন নামঞ্জুর করেছেন আদালত। একইসঙ্গে প্রদীপের স্ত্রী চুমকির বিরুদ্ধে জারি করা হয়েছে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা।

বুধবার (১ সেপ্টেম্বর) দুপুরে চট্টগ্রামের সিনিয়র স্পেশাল জজ শেখ আশফাকুর রহমানের আদালত এ আদেশ দেন।

দুদকের আইনজীবী মাহমুদুল হক এ তথ্য নিশ্চিত করেন। তিনি আলোকিত চট্টগ্রামকে বলেন, দুপুর ১টার দিকে ওসি প্রদীপকে কক্সবাজার থেকে চট্টগ্রাম আদালতে আনা হয়।

আরও পড়ুন: খুনের মামলার আসামি ওসি প্রদীপের ‘মোবাইল আলাপ’—প্রত্যাহার হলো ৪ পুলিশ

তিনি আরও বলেন, ওসি প্রদীপ ও তাঁর স্ত্রী চুমকির বিরুদ্ধে ২ কোটি ৩৫ লাখ ৯৮ হাজার ৪১৭ টাকার আয়বর্হিভূত সম্পদ অর্জন ও অন্যকে হস্তান্তর এবং ৪৯ লাখ ৫৮ হাজার ৯৫৭ টাকা অর্জিত সম্পদের তথ্য গোপনের অভিযোগ দাখিল করা হয়েছে আদালতে। সাবেক ওসি প্রদীপ কুমার দাশের জামিন আবেদন করা হয়। শুনানি শেষে আদালত সাবেক ওসি প্রদীপের জামিন নামঞ্জুর করে তাঁকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

এর আগে গত ২০ সেপ্টেম্বর মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও দুদকের সহকারী পরিচালক মো. রিয়াজ উদ্দিন প্রদীপ ও তাঁর স্ত্রীর অবৈধ সম্পদ ক্রোকের আবেদন জানান। শুনানি শেষে আদালতে এজাহারে উল্লেখিত সম্পত্তি ক্রোকের আদেশ দেন।

আরও পড়ুন: ‘মেজর সিনহা হত্যা’—জেরা করতে গিয়ে ‘অসুস্থ’ চট্টগ্রামের ২ বাঘা উকিল

২০২০ সালের ২৩ আগস্ট দুদকের সমন্বিত জেলা কার্যালয়, চট্টগ্রাম-২ এর তৎকালীন সহকারী পরিচালক মো. রিয়াজ উদ্দিন বাদি হয়ে সাবেক ওসি প্রদীপ ও তার স্ত্রী চুমকিকে আসামি করে অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে মামলা করেন। এছাড়া তাঁদের বিরুদ্ধে ৩ কোটি ৯৫ লাখ ৫ হাজার ৬৩৫ টাকার আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জন এবং সম্পদের তথ্য গোপন ও মানিলন্ডারিংয়ের অভিযোগ আনা হয়।

এএইচ

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm