‘সাবধান’—চট্টগ্রাম শহরে কসাই সেজে সক্রিয় ছিনতাইকারী

চট্টগ্রামে অভিনব কৌশলে সক্রিয় ছিনতাইকারীরা। কোরবানির ঈদকে সামনে রেখে কসাইয়ের ছদ্মবেশে বিভিন্ন এলাকায় ঘুরছে ছিনতাইকারী। কসাই মনে করে কেউ কাছে গেলেই সুযোগ বুঝে করবে সর্বশান্ত।

কসাইয়ের বেশে অভিনব কৌশলে ছিনতাইয়ের চেষ্টাকালে তালিকাভুক্ত ছিনতাইকারী মো. শেখ ফরিদকে (২২) গ্রেফতার করেছে ডবলমুরিং থানা পুলিশ।

সোমবার (১৯ জুলাই) রাতে নগরের আগ্রাবাদ মোড় থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। এ সময় তার কাছ থেকে ২ টি ছুরি ও গরুর মাংস কাটার গাছের গুড়ি উদ্ধার করা হয়।

পুলিশ জানায়, সোমবার বিকেলে কসাই মনে করে এক ব্যক্তি তার কাছে গেলে ফরিদ ছিনতাইয়ের চেষ্টা করে। এ সময় টহল পুলিশ দেখে তিনি পালিয়ে যান। রাত সাড়ে ১০ টায় একই কায়দায় আবারও আগ্রাবাদ এলাকায় বসে। এ সময় টহল পুলিশ আসতে দেখে পালানোর চেষ্টা করলে তাকে ধাওয়া দিয়ে গ্রেফতার করা হয়।

পুলিশ আরও জানায়, গ্রেফতার ফরিদের বিরুদ্ধে ছিনতাইয়ের অভিযোগে নগরের বিভিন্ন থানায় ৫টি মামলা রয়েছে।

এ বিষয়ে ডবলমুরিং থানার ওসি মোহাম্মদ মহসীন বলেন, ‘ফরিদ সিএমপির চিহ্নিত ও তালিকাভুক্ত ছিনতাইকারী। সে মাস দুয়েক আগে হাতেনাতে ধরা পড়ে। মাত্র সপ্তাহ খানেক আগে জেল থেকে ছাড়া পায়। এরপরই ছিনতাইয়ের নতুন কৌশলে আবার মাঠে নামে।’

গ্রেফতার ফরিদ জানায়, কোরবানি উপলক্ষে কসাই ঘোরাফেরা করে। তাদের সবার কাছে ছুরি থাকে। তাই কসাইয়ের ছদ্মবেশ নিলে ছুরি নিয়ে অবাধে চলাফেরা করতে পারবে। এই চিন্তা থেকেই তার কসাইয়ের বেশ ধারণ।

আলোকিত চট্টগ্রাম

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm