রাতের আঁধারে হাওয়া শতবর্ষী গাছ౼সাক্ষী এখন সিসি ক্যামেরা

বোয়ালখালীর স্বাধীনতা সংগ্রামের নীরব সাক্ষী শতবর্ষী সরকারি আমগাছটি রাতের আঁধারে কেটে নিয়েছে দুর্বৃত্তরা।

শুক্রবার (১০ ডিসেম্বর) মধ্যরাতে উপজেলা পরিষদ চত্বর থেকে গাছটি কেটে নেওয়া হয়।

এদিকে এ ঘটনায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও থানায় অভিযোগ করেছেন বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন বোর্ড (বিআরডিবি) বোয়ালখালীর চেয়ারম্যান এসএম মিজানুর রহমান।

স্থানীয়রা জানান, গত ২৪ নভেম্বর পরিষদ চত্বরে থেকে বিআরডিবির গাছটি বোয়ালখালী পৌরসভার মেয়র জহুরুল ইসলাম জহুরের নির্দেশে তার চাচাত ভাই মো. সাইফুদ্দিন লোকজন নিয়ে কাটা শুরু করেন। পরে বিআরডিবির বাঁধার মুখে গাছকাটা বন্ধ করে দেওয়া হয়। এরপর শুক্রবার গভীর রাতে গাছটি কেটে নিয়ে যাওয়া হয়।

আরও পড়ুন: ‘গাছের সঙ্গে নিষ্ঠুরতা’—পেরেক ঠুকে সিআরবিতে ‘পরিবেশ’ আন্দোলন সুজনের

এলাকাবাসীরা বলেন, যেখানে দেশে সবুজ বিপ্লব ঘটাতে বৃক্ষরোপণে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা রয়েছে সেখানে রাতের আধারে যারা এ শতবর্ষী গাছ কেটে নিয়েছে তারা দেশ ও প্রকৃতির শত্রু। এসব বৃক্ষ নিধনকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেওয়া হোক।

যোগাযোগ করা হলে বিআরডিবি বোয়ালখালীর চেয়াম্যান এসএম মিজানুর রহমান আলোকিত চট্টগ্রামকে বলেন, শতবর্ষী গাছটি কেটে নিয়ে যাওযার বিষয়ে আজ (শনিবার) সকালে জানতে পেরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও থানায় অভিযোগ করেছি। এলাকাটা সিসি ক্যামেরা দ্বারা নিয়ন্ত্রিত। প্রশাসন আন্তরিক হলে দুর্বৃত্তদের দ্রুত আইনের আওতায় আনা সম্ভব হবে।

অভিযাগে বিষয়ে জানতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাজমুন নাহারের মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করেও বন্ধ পাওয়া যায়।

বোয়ালখালী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আবদুল করিম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, অভিযোগ তদন্ত করে দোষীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আরবি

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm