মিরসরাইয়ে ৯/১১ ব্যাচের মিলনমেলায় দিনজুড়ে আয়োজন

‘মিরসরাইয়ান বন্ধুদের বন্ধন মননে লেপ্টে থাকুক আজীবন’ এই স্লোগানে উৎসবমুখর পরিবেশে মিরসরাই উপজেলার ৯/১১ ব্যাচের মিলনমেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৫ মে) দিনব্যাপী অনুষ্ঠান উপজেলার মহামায়া লেকে বিভিন্ন ইভেন্ট আয়োজনের মধ্যদিয়ে সম্পন্ন হয়।

জাতীয় সংগীত পরিবেশেন ও পবিত্র কোরআন তেলোয়াতের মাধ্যমে দিনব্যাপী অনুষ্ঠানের শুরু হয়। এরপর ৯/১১ ব্যাচের লগো উন্মোচন, কেক কাটা, ক্রীড়া প্রতিযোগিতা, স্মৃতিচারণ, র‌্যাফেল ড্র, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও পুরষ্কার বিরতণরে মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি হয়।

স্মৃতিচারণ অনুষ্ঠানে ৯/১১ ব্যাচের সোহরাওয়ার্দী নিজামী নওফেলের সঞ্চালনায় স্কুলজীবনের স্মৃতিচারণ করেন মো. জাহিদ হোসেন, আহমেদ রাকিক, মো. সুজন, মো. হাসান সবুজ, এসএম শহিদ, আবু সাহাদাত সায়েম, রফিক উদ্দিন, মো. সালাহ উদ্দিন ও বাহাউদ্দীন আকিফ।

আরও পড়ুন: মিরসরাইয়ে বেপরোয়া পিকআপ কেড়ে নিল বৃদ্ধের প্রাণ

স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে তাঁরা বলেন, বিদ্যালয়ে যখন ছিলাম তখন বুঝিনি আসলে এটি কত প্রিয় জায়গা ছিল। এখন প্রতিনিয়ত বিদ্যালয়ের স্মৃতিগুলোকে মিস করি। বন্ধুদের সান্নিধ্যও খুব মনে পড়ে। আজ ব্যাচের সবাই একত্রিত হতে পেরে মনে হচ্ছে যেন শৈশবে ফিরে গেছি। ২০০৯ সালে এসএসসি পাস এবং ২০১১ সালে এইচএসসি পাস করার পর যে যার মতো করে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হয়েছি। কেউবা আবার পরিবারের অভাব দূর করতে প্রবাস জীবনে পাড়ি দিয়েছি। অনেকদিন পর পুরোনো বন্ধুদের সাথে দেখা হয়েছে। সত্যি খুব ভালো লাগছে।

তাঁরা বলেন, করোনার কারণে দীর্ঘদিন অনেক বন্ধুদের সাথে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন ছিল। এই মিলনমেলা আমাদের অনেক পুরানো দিনের কথা মনে করে দিল। প্রতিবছর যেন আমাদের এই মিলনমেলা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

অনুষ্ঠানে অতিথি ছিলেন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সহসভাপতি রায়হান কায়ছার ও মিরসরাই উপজেলা ছাত্রলীগের আহ্বায়ক মাসুদ করিম রানা।

সরেজমিন দেখা যায়, বন্ধুরা ফিরে গেছে সেই সোনালি অতীতের স্কুলজীবনে। সবাই মেতে উঠেছে আড্ডা, গল্প, সেলফি তোলাসহ নানা খুনসুটিতে। স্মৃতিচারণে উঠে আসে তাঁদের অতীতের নানা ঘটনা। এভাবে আনন্দ, আবেগ উচ্ছ্বাসে যেন ৯/১১ ব্যাচের মিলনমেলা উৎসবে পরিণত হয়েছে।

সবশেষে ক্রীড়া প্রতিযোগিতার পুরষ্কার বিতরণ, র‌্যাফেল ড্র ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে দিনব্যাপী অনুষ্ঠান শেষ হয়।

আজিজ/এসআই

মন্তব্য নেওয়া বন্ধ।

ksrm