‘বিয়ের লোভ’—প্রেম থেকে ধর্ষণ, পালিয়েও বাঁচল না সেই ধর্ষক

পটিয়ার ধলঘাটা এলাকায় চাঞ্চল্যকর ধর্ষণ মামলার মূল আসামি মো. মোজাম্মেল হক হৃদয়কে (২৫) ঘটনার চার মাস পর গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

বুধবার (২৮ জুলাই) রাত সাড়ে ৯টার দিকে বহদ্দারহাট বারইপাড়া এলাকার থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব-৭। গ্রেপ্তার মোজাম্মেল হক হৃদয় বোয়ালখালী উপজেলার ঘোরাপাড়ার মো. মফিজুর রহমানের ছেলে।

এ বিষয়ে র‌্যাব-৭ এর সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) মো.নূরুল আবছার আলোকিত চট্টগ্রামকে জানান, চলতি বছরের ২১ মার্চ পটিয়া উপজেলার ধলঘাটা এলাকায় এক তরুণীকে ধর্ষণের ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর ভিকটিমের পরিবার মোজাম্মেল হক হৃদয়কে প্রধান আসামি করে থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। পরে এই চাঞ্চল্যকর ধর্ষণ মামলার ছায়াতদন্ত শুরু করে র‌্যাব।

তিনি আরও জানান, বুধবার মামলার প্রধান আসামি মোজাম্মেল হক হৃদয় বহদ্দারহাট বারইপাড়ায় অবস্থান করছে এমন খবরে অভিযানে যাই। আমাদের উপস্থিতি টের পেয়ে তিনি অবস্থান করা বাসা থেকে পালানোর চেষ্টা করলে তাকে ধাওয়া করে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে আইনানুগ প্রক্রিয়া শেষে তাকে পটিয়া থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

এএইচ/আরবি

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm