দুই ছাত্রের মৃত্যু—কোয়ান্টাম স্কুল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে মামলা

 

বান্দরবানে খেলতে গিয়ে কোয়ান্টাম কসমো স্কুলের দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যুর ঘটনায় মামলা করেছেন এক শিক্ষার্থীর স্বজন।

দায়িত্বে অবহেলার কারণে এ মামলা করেন তিনি।

নিহত অপর শিক্ষার্থী হলেন আব্দুল কাদের জিলানী (১২)। তারা কোয়ান্টাম কসমো স্কুলের ষষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থী।

Yakub Group

বুধবার (৯ জুন) লামা থানার ইন্সপেক্টর তদন্ত মো. আলমগীর বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ‘মঙ্গলবার রাতে দায়িত্বে অবহেলার অভিযোগ এনে কোয়ান্টাম কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন নিহত ছাত্র শ্রেয় মোস্তাফিজুর রহমানের (১৩) এক স্বজন। আমরা দুই ছাত্রের মৃত্যুর ঘটনাটি গুরুত্বের সঙ্গে তদন্ত করছি।’

শ্রেয় মোস্তাফিজের বাবা মো. বুলবুল মোস্তাফিজ বলেন, ‘কোয়ান্টাম স্কুলে আমার সন্তানকে শারীরিকভাবে নির্যাতন করা হতো। আমাদের নির্যাতনের কথা বলতে চাইলে তাকে শারীরিক-মানসিক নির্যাতনের মাত্রা আরো বাড়িয়ে দিত।’

‘সোমবার সাড়ে ১১টায় ঘটনা ঘটলেও স্কুল কর্তৃপক্ষ আমাকে এ সংবাদ জানিয়েছে বিকাল ৩টার পর। কোয়ান্টাম কর্তৃপক্ষের অবহেলার কারণে আমি সন্তান হারিয়েছে। আমি এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচার চাই, বলেন মোস্তাফিজের বাবা।

তবে শিক্ষার্থীদের শারীরিক নির্যাতনের অভিযোগ অস্বীকার করে তিনি বলেন, ‘মামলায় দায়িত্বে অবহেলার অভিযোগ আছে বলে আমরা অবগত হয়েছি।’

শরিফুল আলম বলেন, গত সোমবার সকাল সাড়ে ১১টায় স্কুল মাঠে জমে থাকা পানিতে খেলতে গিয়ে মাঠের পাশে পানি নির্গমনের পাইপে পড়ে মৃত্যু হয় এ দুই শিক্ষার্থীর।

লামা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিজানুর রহমান বলেন, ‘১৩ ইঞ্চি পাইপের মধ্যে ঢুকে কীভাবে দুই ছাত্রের মৃত্যু হলো তা জানতে গভীর তদন্ত করা প্রয়োজন।’

আলোকিত চট্টগ্রাম

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm