৮ পুরুষকে হারিয়ে রেকর্ড গড়লেন খোদেসতা

কক্সবাজারের ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে রেকর্ড গড়েছেন খোদেসতা বেগম রীনা।

রামু উপজেলার দক্ষিণ মিঠাছড়ির নবনির্বাচিত এই চেয়ারম্যান ৮ পুরুষ প্রতিদ্বন্দ্বীকে হারিয়ে ইতিহাসের পাতায় নাম লেখালেন।

খোদেসতা বেগম নৌকা প্রতীক নিয়ে বেসরকারিভাবে বিজয়ী হয়েছেন বলে নিশ্চিত করেন ইউনিয়নের রিটার্নিং কর্মকর্তা ও উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা গৌর চন্দ্র দে।

নৌকা প্রতীক নিয়ে খোদেসতা বেগম রীনা ৫ হাজার ৯১৫ ভোট পেয়ে বিজয়ী হন। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী টেবিল ফ্যান প্রতীকে মো. ইউনুছ পেয়েছেন ৩ হাজার ৪৩৫ ভোট।

এ ইউনিয়নের ১৬ হাজার ১২৮ জন ভোটারের মধ্যে ভোট দেন ১৩ হাজার ২৯২ জন। বাতিল হয় ২৯০টি ভোট।

Thai Food

আরও পড়ুন : ‘অনন্য রেকর্ড’— রাউজানে ভোটের আগেই সবাই জয়ী

অন্য প্রার্থীদের মধ্যে ঘোড়া প্রতীকে সাইফুল আলম ৩ হাজার ৭১, হাতপাখা প্রতীকে মু. শফিউল্লাহ ২৫০, টেলিফোন প্রতীকে সাইফুল ইসলাম ২১৭, আনারস প্রতীকে ইয়াসিন মনির সোহাদ ৪২, মোটরসাইকেল প্রতীকে ওমর ফারুক ৩০, অটোরিকশা প্রতীকে সাদ আল আলম চৌধুরী ২৮ এবং চশমা প্রতীক নিয়ে এয়াকুব ১৪ ভোট পেয়েছেন।

খোদেসতা বেগম রীনা আলোকিত চট্টগ্রামকে বলেন, এটি আমার জীবনের বড় অভিজ্ঞতা হয়ে থাকবে। একজন নারী হয়ে আটজন পুরুষ প্রার্থীর সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছি। তাঁদের পেছনে ফেলে জয়ী হয়েছি।

খোদেসতা বেগম রীনা ইউনিয়ন মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদক। তিনি চেয়ারম্যান মনিরুল আলম চৌধুরীর সহধর্মিণী। ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান জাবেদের ফুফাত বোন তিনি।

আলোকিত চট্টগ্রাম
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm