‘জাহাজে লুট’—ধাওয়া করে ৪৩ জলদস্যুকে ধরল কোস্টগার্ড

গভীর বঙ্গোপসাগরের একটি জাহাজ থেকে ডাকাতি করে পালানোর সময় ৪৩ জলদস্যুকে ৩টি বোটসহ আটক করেছে কোস্টগার্ড।

মঙ্গলবার (১৪ ডিসেম্বর) রাত ১২টার দিকে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয় বলে কোস্টগার্ডের পক্ষ থেকে জানানো হয়।

কোস্টগার্ড জানায়, কক্সবাজার লাইট হাউজ থেকে আনুমানিক ৩৭ নটিক্যাল মাইল দূরে এমভি লাদিন্দা নামের একটি স্ক্র্যাপ জাহাজে জলদস্যুরা তিনটি নৌযানে এসে হানা দেয়। তারা জাহাজে উঠে লুটপাটের সময় শিপিং এজেন্ট খবর পাঠায় কোস্টগার্ডের কাছে। খবর পেয়ে কোস্টগার্ডের জাহাজ শহিদ মনসুর আলী দ্রুত ঘটনাস্থলে ছুটে যায়।

আরও পড়ুন: দুই জলদস্যুর কাছে ৩ দেশি অস্ত্র

অভিযানে অংশ নেওয়া কোস্টগার্ড কর্মকর্তা লে. কমান্ডার মেহেদী জানান, কোস্টগার্ডের জাহাজ পৌঁছার আগে জলদস্যুরা জাহাজে লুটপাট শেষে তাদের নৌযানে করে পালাতে থাকে। এ সময় আমরাও তাদের পেছনে ধাওয়া করি। পরে তাদের বহনকারী নৌযান দুটিকে গতিরোধ করে ৪৩ জনকে ধরতে সক্ষম হয়। এ সময় তাদের কাছ থেকে লুট করা বার্থি হাউজার, স্টিল ওয়্যার রোপসহ বিভিন্ন মালামাল উদ্ধার করা হয়।

তিনি আরও জানান, আটক জলদস্যুরা প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে এবং তাদের মোবাইল পরীক্ষা করে গভীর সাগরে বিদেশি জাহাজে ডাকাতি সংক্রান্ত গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাওয়া গেছে। বিদেশি জাহাজের এজেন্টসহ বিভিন্ন পর্যায় থেকে গভীর সাগর এবং বন্দরের বহির্নোঙরে অবস্থানরত জাহাজের তথ্য জানিয়ে দেওয়া হতো জলদস্যুদের।

আটক ৪৩ জনের বিরুদ্ধে নগরের পতেঙ্গা থানায় মামলা করা হয়েছে বলে জানিয়েছে কোস্টগার্ড

আরবি

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm