২০ টাকার চিকিৎসাকেন্দ্র ‘নিখাদ হেলথ কেয়ার’

বিভিন্ন রোগের উপসর্গ দেখা দিলে গ্রামের লোকদের শহরে ছুটতে হয় চিকিৎসা নিতে। সেই সঙ্গে থাকে ডাক্তারের ফি ও নানান ডায়াগনস্টিক পরীক্ষা-নিরীক্ষার খরচ। আবার ব্যয়বহুল চিকিৎসা খরচের জন্য অনেকেই ভালোভাবে চিকিৎসাসেবাও নিতে পারেন না।

তবে মিরসরাইয়ের বাসিন্দাদের চিকিৎসা দিতে ব্যতিক্রমী উদ্যোগ নিয়েছে ‘নিখাদ হেলথ কেয়ার’ নামে এক প্রতিষ্ঠান। এখানে মাত্র ২০ টাকায় পাওয়া যায় চিকিৎসাসেবা। এতে দারুণ উপকৃত হচ্ছে দরিদ্র ও নিম্ন আয়ের মানুষ।

উপজেলার আবুতোরাব বাজারের ভূইয়া মার্কেটে প্রতি বৃহস্পতিবার দুপুর ৩টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত বিশেষজ্ঞ ডাক্তার রোগীদের চিকিৎসা দিয়ে থাকেন। সেই সঙ্গে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে যেসব দরিদ্র মানুষ ওষুধ কিনতে পারেন না তাদের বিনামূল্যে ওষুধও প্রদান করা হয়।

আরও পড়ুন : পার্কভিউ হাসপাতাল—বিনা খরচে ৪ ঘণ্টার অপারেশন, পঙ্গুত্বকে জয় করলেন এতিম যুবক

কথা হয় এখানে চিকিৎসাসেবা নিতে আসা রহিমা আক্তারের সঙ্গে। তিনি আলোকিত চট্টগ্রামকে বলেন, মাত্র ২০ টাকা দিয়ে ডাক্তার দেখাতে পারছি। ডাক্তারও খুব আন্তরিকতার সঙ্গে বিভিন্ন রোগের বিবরণ জানতে চেয়েছেন। এখানে ডাক্তার দেখিয়ে আমি প্রশান্তি অনুভব করছি।

মুনতাছির উদ্দিন নামের আরেক রোগী বলেন, ২০ টাকার বিনিময়ে ডাক্তার দেখাতে পারা আমাদের জন্য সৌভাগ্যের। ওষুধ কিনতে অসমর্থদের ডাক্তার দেখানোর পাশাপাশি সাধারণ ওষুধও দেওয়া হয় এখানে।

চিকিৎসাসেবা দেওয়া ডা. সঞ্জয় চন্দ্র নাথ আলোকিত চট্টগ্রামকে বলেন, গ্রামীণ অঞ্চলে দাতব্য প্রতিষ্ঠানের গুরুত্ব কতটা তা বলার অপেক্ষা রাখে না। দাতব্য প্রতিষ্ঠান ‘নিখাদ হেলথ কেয়ার’র মাধ্যমে প্রান্তিক জনগোষ্ঠীকে চিকিৎসাসেবা দিতে পেরে ভালো লাগে। এখানে রোগী দেখে তৃপ্তি পাই।

আরও পড়ুন: জরুরি চিকিৎসায় অসম্মতি জানাতে পারবে না হাসপাতাল : হাইকোর্টের রুল

যোগাযোগ করা হলে নিখাদ হেলথ কেয়ার’র চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম ভূঁইয়া আলোকিত চট্টগ্রামকে বলেন, কোনো রোগকেই অবহেলা করা উচিত না। তাৎক্ষণিক চিকিৎসার জন্য ডাক্তারের শরণাপন্ন হওয়া উচিত। কিন্তু প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর সবার পক্ষে প্রচলিত অঙ্কের ফি দিয়ে ডাক্তার দেখানো সম্ভব হয় না। তাই আমরা নিখাদ হেলথ কেয়ারের মাধ্যমে সর্বসাধারণের জন্য, বিশেষ করে মা ও শিশুদের জন্য ২০ টাকা ফিতে স্বাস্থ্যসেবার ব্যবস্থা করেছি।

ডিসি
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm