স্পিডবোটে স্মাগলিং—১ লাখ ইয়াবাসহ ধরা খেল ৫ কারবারি

নগরে ১ লাখ ইয়াবাসহ ৫ জনকে আটক করেছে র‌্যাব-৭। এসময় ইয়াবা পরিবহনে ব্যবহৃত একটি স্পিডবোট ও একটি লাইফ বোট জব্দ করা হয়।

শনিবার (১৫ অক্টোবর) সন্ধ্যায় পতেঙ্গা থানাধীন সি-বিচ মেইন পয়েন্ট এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়।

আটকরা হলেন– পতেঙ্গা থানার দক্ষিণ পতেঙ্গা এলাকার সালেহ আহমদের ছেলে নিজাম উদ্দিন (৩০), বিমানবন্দর এলাকার ওবায়দুল হকের ছেলে ওমর ফারুক (৪০), আনোয়ারা থানার গহিরা এলাকার নুর নবীর ছেলে ইমরান হোসেন (২০), একই থানার গহিরা এলাকার আব্দুল মোতালেবের ছেলে আব্দুল মালেক (৫২) ও আব্দুল মালেকের ছেলে হাসান মিয়া (২১)।

আরও পড়ুন: কুটুমবাড়ি রেস্তোরাঁর সামনে যুবক ধরা খেল ১৮০০ ইয়াবা নিয়ে

রোববার (১৬ অক্টোবর) বিষয়টি নিশ্চিত করেন র‌্যাব-৭ এর সিনিয়র সহকারী পরিচালক মো. নূরুল আবছার। তিনি আলোকিত চট্টগ্রামকে বলেন, মাদক ব্যবসায়ীরা মাদকের একটি বড় চালান নিয়ে স্পিডবোটে সাগরপথে পতেঙ্গা সি-বিচের দিকে আসছিল। খবর পেয়ে পতেঙ্গা সি-বিচ মেইন পয়েন্ট ঘাটে অভিযান চালানো হয়। এসময় পালাতে গেলে স্পিডবোট থেকে দুজন এবং লাইফ বোট থেকে তিনজনসহ মোট পাঁচজনকে আটক করা হয়। পরে তাদের দেওয়া তথ্যে দুটি ট্র্যাভেল ব্যাগ থেকে এক লাখ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। এছাড়া তাদের বহন করা স্পিডবোট ও লাইফ বোটটি জব্দ করা হয়।

Yakub Group

তিনি আরও বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আটকরা দীর্ঘদিন ধরে টেকনাফের সীমান্ত এলাকা দিয়ে মিয়ানমার থেকে সাগরপথে ইয়াবা সংগ্রহ করে দেশের বিভিন্ন এলাকার মাদক ব্যবসায়ীদের কাছে বিক্রি করার কথা স্বীকার করেছে।

এনইউএস/আরবি

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

মন্তব্য নেওয়া বন্ধ।

ksrm