ফেসবুকে পোস্টের ১ ঘণ্টা পরেই লাশ যুবক

মিরসরাইয়ে বেপরোয়া বাসের ধাক্কায় রবিউল হোসেন সেলিম (৩৫) নামের এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় ঘাতক বাসটিকে আটক করা হলেও পালিয়েছে চালক।

রোববার (১৭ এপ্রিল) সকাল সাড়ে ১১টায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের উপজেলার জোরারগঞ্জের বিএসআরএম গেইট এলাকায় রাস্তা পারাপারের সময় ঢাকামুখী লেইনে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

আরও পড়ুন: পালিয়ে যাওয়া অটোরিকশার চাকায় লাশ শিশু, রক্তাক্ত ২

নিহত সেলিম উপজেলার জোরারগঞ্জ ইউনিয়নের পশ্চিম সোনাপাহাড় এলাকার মো. আবু তাহেরের ছেলে। তিনি উপজেলা যুবলীগের সাবেক সদস্য ছিলেন। পাশাপাশি ঠিকাদারি ব্যবসার সঙ্গে জড়িত।

জানা গেছে, মৃত্যুর এক ঘণ্টা আগে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে গায়ে হলুদের একটি ছবি পোস্ট করে স্ত্রীকে উৎসর্গ করে লিখেন, ‘দেখতে দেখতে আজ বিবাহিত জীবনের ১৩টি বসন্ত পার হয়ে গেছে। কিন্তু আমার কাছে মনে হয় এইতো সেদিন যেন শুভ পরিণয় হয়েছিল আমার ও প্রিয়তম তোমার। প্রিয়তম, তুমি এই সংসার ও আমার জন্য অনেক করে যাচ্ছো। আজকের এইদিনে তোমাকে জানাই অভিনন্দন, শুভেচ্ছা ও অনেক কৃতজ্ঞতা।

আরও পড়ুন: মোটরসাইকেল আরোহীকে লাশ করে পালিয়ে গেল গাড়ি

এ বিষয়ে স্থানীয় ছাত্রলীগ নেতা সালমান ফারসি জানান, নিজের ব্যবসায়িক কাজের জন্য সকালে সেলিম বাড়ি থেকে বের হন। পথে বিএসআরএম গেইট এলাকায় রাস্তা পার হওয়ার সময় একটি দ্রুতগতির তিশা পরিবহন নামের বাস এসে তাকে ধাক্কা দিলে গুরুতর আহত হয়ে মাটিতে পড়ে যান। পরে স্থানীয় লোকজন এসে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স মস্তাননগর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে জোরারগঞ্জ হাইওয়ে থানার ইনচার্জ মো. আলমগীর হোসেন বলেন, রাস্তা পারাপারের সময় ঢাকামুখী তিশা পরিবহন বাসের ধাক্কায় রবিউল হোসেন সেলিম নামের এক যুবক নিহত হয়েছেন। ঘাতক বাসটিকে আটক করা হয়েছে। নিহতের লাশ আইনি প্রক্রিয়া শেষে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

আজিজ/আরবি

মন্তব্য নেওয়া বন্ধ।

ksrm