সাবেক স্ত্রীর আপত্তিকর ছবি ফাঁস—তথ্যপ্রযুক্তি আইনে ১০ বছরের কারাদণ্ড

সাবেক স্ত্রীর আপত্তিকর ছবি ফাঁসের অভিযোগে এক ব্যক্তিকে ১০ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। অভিযুক্ত স্বামী গোলাম রসুলকে (৩৫) একইসঙ্গে পাঁচ লাখ টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও ছয় মাসের কারাদণ্ড দেন আদালত।

তথ্যপ্রযুক্তি আইনের ৫৭ ধারার মামলায় মঙ্গলবার (২৮ সেপ্টেম্বর) রাজশাহী সাইবার ট্রাইব্যুনাল আদালতের বিচারক মো. জিয়াউর রহমান এ রায় ঘোষণা করেন।

তবে গোলাম রসুল এখনো পলাতক। তাঁর বাড়ি বগুড়ার কাহালু উপজেলার পাঁচগ্রাম গ্রামে। তাঁর অনুপস্থিতিতেই আদালত রায় ঘোষণা করেন।

আরও পড়ুন: রায়ে ‘আমৃত্যু’ না থাকলে যাবজ্জীবন অর্থ ৩০ বছর

Yakub Group

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ইসমত আরা জানান, স্ত্রী-সন্তানের কথা গোপন রেখে গোলাম রসুল এক তরুণীর সঙ্গে মুঠোফোনে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলেন। পরে সেই তরুণীকে বিয়েও করেন। বিয়ের কিছুদিন পর ওই তরুণী গোলাম রসুলের স্ত্রী-সন্তান থাকার কথা জানতে পারেন। ২০১৬ সালের ২১ আগস্ট তিনি গোলাম রসুলকে তালাক দেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে তিনি ওই বছরের ২৪ আগস্ট সাবেক স্ত্রীর আপত্তিকর ছবি খামে ভরে সাবেক স্ত্রীর বাবার বাড়ির সামনে রেখে যান।

ওই দিনই ভুক্তভোগী তরুণীর বাবা থানায় অভিযোগ দেন। পুলিশ গোলাম রসুলের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে তাঁর কম্পিউটারে রাখা ওই তরুণীর ৩৯টি আপত্তিকর ছবি পায়। এরপর জব্দ করা হয় তাঁর কম্পিউটার।

আরও পড়ুন: লকডাউন দেখতে এসে কপালে জুটল কারাদণ্ড

এ ঘটনায় গোলাম রসুলের বিরুদ্ধে কাহালু থানায় তথ্যপ্রযুক্তি আইনের ৫৭ ধারায় মামলা করেন ওই তরুণীর বাবা। পুলিশ আসামি গোলাম রসুলকে গ্রেপ্তারও করে। তবে পরে জামিন পেয়ে তিনি পালিয়ে যান।

আলোকিত চট্টগ্রাম

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm