হানিফ বাসে বিরল প্রজাতির প্রাণী পাচার করছিল যুবক

লোহাগাড়ায় বিরল প্রজাতির ১টি সজারু ও ২টি লজ্জাবতী বানরসহ মো. এরশাদ (৩২) নামে এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ। আটক মো. এরশাদ কুমিল্লার মুরাদনগরের নোয়ার মিয়ার ছেলে।

সুত্র জানায়, বৃহস্পতিবার (১০ নভেম্বর) বিরল প্রজাতির ১টি সজারু ও ২টি লজ্জাবতী বানরসহ এক যুবক হানিফ পরিবহনে করে কক্সবাজার থেকে ঢাকায় যাচ্ছিল খবর পেয়ে উপজেলার চুনতি রেঞ্জ বন কর্মকর্তার কার্যালয়ের সামনে চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কে তল্লাশি চালায় পুলিশ। এ সময় বিপন্ন প্রজাতীর একটি সজারু ও দুটি লজ্জাবতী বানরসহ মো. এরশাদকে আটক করা হয়।

পরে উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মো. শাহজাহান ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে মো. এরশাদকে ছয় মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড ও ৫ হাজার টাকা অর্থদণ্ড দেন।

লোহাগাড়া থানার ওসি মো. আতিকুর রহমান বলেন, রাত আনুমানিক ১০টার দিকে লোহাগাড়া উপজেলার চুনতি রেঞ্জ বন কর্মকর্তার কার্যালয়ের সামনে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে হানিফ পরিবহন তল্লাশি চালিয়ে একটি সজারু ও দুটি লজ্জাবতী বানরসহ মো. এরশাদকে আটক করা হয়।

উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মো. শাহজাহান বলেন, আটক ব্যক্তি স্বীকার করেন সে বিক্রির উদ্দেশ্যে বিরল প্রজাতির এই প্রাণীগুলো নিয়ে যাচ্ছিল। আটক ব্যক্তি ভ্রাম্যমাণ আদালতে তার অপরাধ স্বীকার করায় আইন অনুযায়ী ৬ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড এবং ৫ হাজার টাকা অর্থদণ্ড দেওয়া হয়। অর্থদণ্ড অনাদায়ে আরও ১৫ দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়। আসামিকে কারাগারে পাঠানোর জন্য লোহাগাড়া থানায় সোপর্দ করা হয়। বিরল প্রজাতির এই প্রাণীগুলো ডুলাহাজরা সাফারি পার্কের রেঞ্জ কর্মকর্তা মো. মাহমুদ হোসেনের জিম্মায় দেওয়া হয়।

Yakub Group

সাত্তার/এসআই

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

মন্তব্য নেওয়া বন্ধ।

ksrm