হাটহাজারীর বিয়েকাণ্ড—বরের বয়স ২৪, কনে ১৩

বিয়ে বাড়ি তখন অতিথিদের আনাগোনায় মুখর। বর-কনেকে নিয়ে ছবি তুলতে ব্যস্ত সবাই। ঠিক তখনই বাল্য বিয়ে বন্ধে হাজির হন হাটহাজারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. রুহুল আমীন।

বুধবার (১২ মে) দুপুর দেড়টায় মির্জাপুর ইউনিয়নের চারিয়া ৯ নম্বর ওয়ার্ডে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে বিয়ে বন্ধ করেন ইউএনও।

ইউএনও রুহুল আমীন আলোকিত চট্টগ্রামকে বলেন, দুপুরে এসে আমরা বাল্য বিয়ে বন্ধ করে দেই। ছেলের বয়স ২৪ হলেও জন্ম নিবন্ধন অনুযায়ী অষ্টম শ্রেণীর ছাত্রী মেয়েটির মাত্র ১৩। তারা আদালতে বিয়ের কাগজ দেখালেও তা আইনসম্মত নয়। তাই আমরা মেয়েটির পরিবারকে বুঝিয়েছি। পরে তারা উভয় পক্ষ বুঝতে পারলে ১৮ বছরের আগে বিয়ে না করানোর জন্য মুচলেকা দিয়ে অঙ্গীকার নিই।

অভিযানকালে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান সৈয়দ আলী হাসান, ইউপি সচিব আবু তৈয়ব এবং ইউপি মেম্বাররা উপস্থিত ছিলেন।

Yakub Group

আলোকিত চট্টগ্রাম

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm