হঠাৎ ‘রেগে আগুন’ মেয়র রেজাউল

হঠাৎ রেগে আগুনের রূপ দেখালেন চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন মেয়র এম রেজাউল করিম চৌধুরী। মেয়রের হঠাৎ অগ্নিমূর্তিতে বৈঠকে উপস্থিতরা বিব্রত হয়ে পড়েন।

বৃহস্পতিবার (২৭ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় চট্টগ্রাম নগর আওয়ামী লীগের সহসভাপতি ও চউক চেয়ারম্যান জহুরুল আলম দোভাষের বাসায় রিভিউ কমিটির বৈঠকে মেয়রের এ অগ্নিমূর্তি দেখা যায়।

আরও পড়ুন: মেয়র রেজাউল প্রধান সমন্বয়ক নন, মাহতাবের নেতৃত্বেই রিভিউ কমিটি—স্পষ্ট জানালেন মাহবুব উল আলম হানিফ

জানা যায়, রাত ৮টার আগেই বৈঠকে বক্তব্য শুরু করেন রিভিউ কমিটির নেতারা। এরপর বৈঠকের কেউ একজন মুঠোফোনে ছবি তুলতে গেলে হঠাৎ রেগে যান সিটি মেয়র এম রেজাউল করিম চৌধুরী।

অগ্নিমূর্তি ধারণ করা মেয়র বলে উঠেন, এই এন্ডে ছবি তুলের যে ইবা কন? তুঁয়ারে ছবি তুলতে কইয়ে কনে। এহন বের হ। (এখানে ছবি তুলছে যে কে সে? তোমাকে ছবি তুলতে কে বলেছে? এখন বেরিয়ে যাও।)

ইউনিট সম্মেলন নিয়ে নগর আওয়ামী লীগের দুই বলয়ের মধ্যে স্নায়ু দ্বন্দ্বে ফিরিঙ্গিবাজারের বাসায় ‘গোপন বৈঠকের’ পর বৃহস্পতিবার রাতে বসে ওপেন বৈঠক। এটি ছিল নগর আওয়ামী লীগের রিভিউ কমিটির তৃতীয় বৈঠক।

বৈঠকে নগরের ২৩ নম্বর ওয়ার্ড থেকে ৪১ নম্বর ওয়ার্ডের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক ছাড়াও আওয়ামী লীগের দুই সাংগঠনিক ওয়ার্ড ৪২ ও ৪৩ নম্বরের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক ছিলেন।

আরও পড়ুন: চসিক মেয়র—মশার জ্বালায় ‘অস্থির’, নিজেও পাশে রাখেন মশার কয়েল

বহদ্দারহাট ও দামপাড়ার বাসার পর এবার ফিরিঙ্গিবাজারে নগর আওয়ামী লীগের সহসভাপতি জহুরুল আলম দোভাষের বাসায় বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল সন্ধ্যা ৭টায়। নির্ধারিত সময়ের মধ্যে বৈঠকে আসেন নগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী, সহসভাপতি নঈম উদ্দিন চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দিন।

এরপর সন্ধ্যা ৭টা ২৭ মিনিটে আসেন উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল। সবশেষে আসেন চসিক মেয়র এম রেজাউল করিম চৌধুরী। তিনি বৈঠকে পৌঁছেন সন্ধ্যা ৭টা ৩৫ মিনিটে।

আলোকিত চট্টগ্রাম

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm