চট্টগ্রামে হঠাৎ বাড়ল করোনা রোগী

চট্টগ্রামে হঠাৎ বেড়ে গেছে করোনা রোগী। মাত্র একদিনের ব্যবধানে সাড়ে পাঁচগুণ হয়েছে করোনা রোগী।

গত ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ২২ জন। অথচ এর আগের দিন করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ছিল ৪ জন।

তবে স্বস্তির কথা, সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামে কোনো করোরা রোগীর মৃত্যু হয়নি।

গত ২৪ ঘণ্টায় ১ হাজার ৮৮৬ নমুনা পরীক্ষায় ২২ জনের শরীরে করোনার জীবাণু পাওয়া গেছে। শনাক্তের হার ১.১৭ শতাংশ। আগের দিন শনাক্তের হার ছিল ০.২৭ শতাংশ।

আরও পড়ুন : চট্টগ্রামে করোনা : শনাক্তের ‘দারুণ’ সাফল্যেও মৃত্যুর যন্ত্রণা

আক্রান্তদের মধ্যে ১৩ জন উপজেলার এবং ৯ জন নগরের বাসিন্দা।

Thai Food

শনিবার (১৬ অক্টোবর) চট্টগ্রাম সিভিল সার্জন কার্যালয় থেকে এ তথ্য প্রকাশ হয়।

২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামের ১২ ল্যাবে ১ হাজার ৮৮৬ নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এরমধ্যে বিআইটিআইডি ল্যাবে ৬২১, কক্সবাজার মেডিকেল কলেজে ১২, মেডিকেল সেন্টারে ৭ ও ল্যাব এইডে ৩ জনের নমুনা পরীক্ষায় কারো শরীরের করোনার উপস্থিতি পাওয়া যায়নি।

তবে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ল্যাবে ১৮ নমুনা পরীক্ষায় ২ জন, চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজে ৯২ নমুনা পরীক্ষায় ৫ জন, চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি ও এনিম্যাল সাইন্সেস বিশ্ববিদ্যালয়ে ৮৬ নমুনা পরীক্ষায় ৮ জন, ইম্পেরিয়াল হাসপাতালে ৩২৫ নমুনা পরীক্ষায় ৩ জন, শেভরনে ৪৯৬ নমুনায় ১ জন, মা ও শিশু হাসপাতালে ১৮৩ নমুনা পরীক্ষায় ১ জন, ইপিক হেলথ কেয়ারে ২৬ নমুনায় ১ জন এবং মেট্রোপলিটন হাসপাতালে ১৭ নমুনা পরীক্ষায় ১ জনের দেহে করোনা ধরা পড়ে।

এদিন আরটিআরএলে কোনো নমুনা পরীক্ষা হয়নি। হয়নি এন্টিজেন টেস্টও।

এদিকে ১৪ উপজেলার মধ্যে লোহাগাড়া, সাতকানিয়া, বাঁশখালী, আনোয়ারা, রাউজান, ফটিকছড়ি, সীতাকুণ্ড ও সন্দ্বীপে এদিন কোনো করোনা রোগী পাওয়া যায়নি। তবে হাটহাজারীতে ৫ জন, রাঙ্গুনিয়ায় ২ জন, চন্দনাইশে ২ জন, বোয়ালখালীতে ২ জন, পটিয়ায় ১ জন এবং মিরসরাইয়ে ১ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়।
চট্টগ্রাম জেলায় এ পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা ১ লাখ ২ হাজার ১০০। যার মধ্যে ৭৩ হাজার ৮৯০ জন নগরের এবং ২৮ হাজার ২১০ জন উপজেলার। আর ১ হাজার ৩১৩ মৃত্যুর ৭২০ জন নগরের এবং ৫৯৩ জন উপজেলার বাসিন্দা।

ডিসি
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm