স্বেচ্ছায় করোনা আক্রান্ত—ভ্যাকসিনবিরোধী সেই গায়িকার মৃত্যু

বিশ্বে এখনো দাপিয়ে বেড়াচ্ছে করোনা। মানুষ যেখানে ভ্যাকসিন নিতে হুড়োহুড়ি করছে সেখানে অনেক আবার এর বিরুদ্ধে।

কিছুদিন আগে ভ্যাকসিন না নেওয়ার ঘোষণা দেওয়া এক শরীর কসরতবিদ করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা যান। এবার সেই তালিকায় যোগ হয়েছে চেক রিপাবলিকের ভ্যাকসিনবিরোধী লোকশিল্পী হানা হোর্কা।

রোববার (১৭ জানুয়ারি) স্বেচ্ছায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন তিনি। ৫৭ বছর বয়সী হানা হোর্কা অ্যাসোন্যান্স নামের একটি ব্যান্ডের কণ্ঠশিল্পী ছিলেন।

তার ছেলে জ্যান রেক বলেন, আমি ও আমার বাবা ভ্যাকসিন গ্রহণের পর মা (হানা) সাউনা ও থিয়েটারে যাওয়ার স্বাস্থ্য পাস নেওয়ার জন্য স্বেচ্ছায় করোনাভাইরাসের সংস্পর্শে আসেন।

মায়ের মৃত্যুর জন্য স্থানীয় ভ্যাকসিনবিরোধী আন্দোলনকে দায়ী করে রেক বলেন, আন্দোলনের নেতারা আমার মাকে ভ্যাকসিন নেওয়ার বিরুদ্ধে রাজি করিয়েছিলেন। আমি জানি, ঠিক কে তাকে প্রভাবিত করেছিল…। তিনি পরিবারের চেয়ে অপরিচিতদের বেশি বিশ্বাস করেছিলেন।

আরও পড়ুন : চট্টগ্রামে করোনা : ঊর্ধ্বমুখী গ্রাফে মৃত্যুর আঘাত

রেক আরো বলেন, মা আমাদের সঙ্গে স্বাভাবিক জীবনযাপন চালিয়ে যেতে চেয়েছিলেন। টিকা নেওয়ার পরিবর্তে ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ভাইরাসপ্রতিরোধী হতে চেয়েছিলেন।

মৃত্যুর দুদিন আগে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে হানা লিখেছিলেন, আমি বেঁচে গেছি… এটা খুব তীব্র ছিল। সুতরাং এখন থেকে থিয়েটার, সাউনা, কনসার্ট এবং সমুদ্রভ্রমণ হবে।

ইউরোপীয় ইউনিয়নের সদস্য রাষ্ট্রগুলোতে সাংস্কৃতিক ও ক্রীড়া ক্ষেত্রে প্রবেশাধিকারের জন্য এবং বার ও রেস্তোরাঁতে যাওয়ার জন্য ভ্যাকসিন গ্রহণ অথবা সাম্প্রতিক সময়ে করোনা থেকে সেরে ওঠার প্রমাণ দেখাতে হয়।

আলোকিত চট্টগ্রাম
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm