রিকশাচালক বাবার স্বপ্ন পূরণ করলেন ছেলে

রিকশাওয়ালা বাবার একমাত্র সন্তান প্রতিক দে। বাবা রিকশা চালিয়ে কঠোর পরিশ্রমের টাকা দিয়ে পড়ালেখা করিয়েছেন তাকে। সম্প্রতি কক্সবাজার জেলায় পুলিশ কনস্টেবল পরীক্ষায় চূড়ান্তভাবে নিয়োগ পেয়েছে রিকশাওয়ালা বাবার সেই সন্তান। মাত্র ১২০ টাকা খরচে সরকারি চাকরি পাওয়ায় আবেগে আপ্লুত প্রতিক।

প্রতিক দে বলেন, আমি একজন রিকশাচালকের ছেলে হলেও আমার মা-বাবা অনেক কষ্ট করে লেখাপড়া শিখিয়েছেন। তাঁর স্বপ্নের ফল আজ আমার পুলিশে চাকরি পাওয়া।

আরও পড়ুন: মন্ত্রীর কাছে নিহত ৬ ছেলের মায়ের ফরিয়াদ—হত্যার বিচার দেখতে চান

প্রতিক দে’র মতো কনস্টেবল হিসেবে চাকরি পেয়েছেন পেকুয়া উপজেলার বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মান্নানের সন্তানও। শুধু রিকশাওয়ালা কিংবা মুক্তিযোদ্ধা সন্তান নয়, কক্সবাজার জেলা থেকে ৪ নারীসহ মোট ৬৪ জন নিয়োগ পেয়েছে বাংলাদেশ পুলিশে।

এদিকে সোমবার (১১ এপ্রিল) দুপুরে জেলা পুলিশ লাইন্সে ট্রেইনিং রিক্রুট কনস্টেবল নিয়োগ পরীক্ষা, ফেব্রুয়ারি-২০২২ লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীদের নিয়ে ব্রিফিংয়ের আয়োজন করে কক্সবাজার জেলা পুলিশ।

এ সময় সাংবাদিকদের পুলিশ সুপার মো. হাসানুজ্জামান বলেন, শতভাগ স্বচ্ছতা এবং সম্পূর্ণ নিজ যোগ্যতায় নিয়োগ পেয়েছেন বাংলাদেশ পুলিশে যোগ দিতে যাওয়া এই নব্য সদস্যরা।

আরও পড়ুন: ৫ ছেলের লাশের পাশেই এক মায়ের বুকফাটা আর্তনাদ

পুলিশ সুপার আরও বলেন, বেশ কয়েকটি ধাপে ৬৪ জনকে নির্বাচিত করা হয়েছে।

এসময় জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন ও অর্থ) মো. রফিকুল ইসলামসহ জেলা পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

বলরাম/আরবি

মন্তব্য নেওয়া বন্ধ।

ksrm